Jago News logo
ঢাকা, শনিবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৭ | ৮ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ

জঙ্গি সন্দেহে আটক ১০ জন রিমান্ডে


নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৯:২১ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৭, মঙ্গলবার
জঙ্গি সন্দেহে আটক ১০ জন রিমান্ডে

রাজধানীর কলাবাগান ও উত্তরা থেকে জেএমবির সারওয়ার-তামিম গ্রুপের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ১০ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য বিচারিক হাকিম (সিজিএম) আদালতে হাজির দশ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে ঢাকার সিনিয়ার জুড়িসিয়াল ম্যাজিস্টেট খায়রুল তাসনিম এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আসামিদের মধ্যে পুরুষ ৯ জনকে চারদিন ও মহিলাকে দুইদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এর আগে আশুলিয়া থানার সন্ত্রাস বিরোধী আইনে দায়ের করা মামলায় সুষ্ঠু তদন্তের জন্য রিমান্ড আবেদন করা হয়।

রোববার দিবাগত রাত থেকে সোমবার ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে রাজধানীর উত্তরা ও কলাবাগান থেকে নব্য জেএমবির সারোয়ার-তামিম গ্রুপের সন্দেহভাজন ১০ জনকে আটক করে র‌্যাব-৪ এর একটি দল।

আটকরা হলেন- উত্তরার ১৩ নম্বর সেক্টরের লাইফ স্কুলের সাবেক অধ্যক্ষ শরিফুল ইসলাম (৪৬), তার ভাগ্নে ও স্কুলের সাবেক পরিচালক জিয়াউর রহামন (৩১), বর্তমান অধ্যক্ষ মো. মিজানুর রহমান (৪৩), আবু সাদাত মো. সুলতান আল রাজি ওরফে লিটন (৪১), আল মিজানুর রশিদ (৪১), জান্নাতুল মহল ওরফে জিন্নাহ (৬০), মো. কৌশিক আদনান সোবহান (৩৭), মেরাজ আলী (৩০), মুফতি আবদুর রহমান বিন আতাউল্লাহ (৩৭) এবং মো. শাহরিয়ার ওয়াজেদ খান (৩৬)।

আটকের পর সোমবার র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (এডিজি-অপারেশন্স) কর্নেল আনোয়ার লতিফ খান এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, আটকদের মধ্যে উদ্বুদ্ধকরণের সঙ্গে শরীফ, শাহরিয়ার ও মিজানের জড়িত থাকার তথ্য পাওয়া গেছে। এছাড়া ওই ১০ জনের বিরুদ্ধে সরাসরি সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার প্রমাণ না পাওয়া গেলেও সারোয়ার-তামিম গ্রুপের যেসব সদস্য মারা গেছে এরা তাদের উদ্বুদ্ধকরণের কাজ করেছে।

র‌্যাবের লিগ্যাল ও মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, আটকদের মধ্যে রাজধানীর উত্তরার ধর্মভিত্তিক ইংরেজি মাধ্যম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান লাইফ স্কুলের কয়েকজন শিক্ষক আছেন।

জেএ/আরএস/পিআর

আপনার মন্তব্য লিখুন...

Comfy-For-Desk