একসঙ্গে যাত্রা শুরু ইস্ট ওয়েস্ট ও এসিআই সিডের

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৪৯ পিএম, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

দেশের অন্যতম সেরা বীজ প্রতিষ্ঠান এসিআই সিডের সঙ্গে যৌথভাবে সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে যাত্রা শুরু করেছে সবজি বীজের প্রতিষ্ঠান ‘ইস্ট ওয়েস্ট সিড’। সর্বমোট ৭১-এর অধিক ফলনশীল উন্নত জাতের বীজ ইতোমধ্যে কৃষি মন্ত্রণালয়ে নিবন্ধন করা হয়েছে বাজারজাতকরণের জন্য।

যার মধ্যে রয়েছে- হাইব্রিড করলা-পালি প্লাস, ঝিঙ্গা-বীর সুপার, মিষ্টিকুমড়া-সোনাবউ, শসা-তামিম প্লাস উল্লেখযোগ্য। এছাড়াও হাইব্রিড লাউসহ বিভিন্ন সবজির অধিক ফলনশীল হাইব্রিড এবং উচ্চফলনশীল জাত রয়েছে যা বর্তমান প্যানডেমিক পরিস্থিতিতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষিদের অর্থনৈতিকভাবে লাভবান করবে। এ সকল জাতসমূহ বাংলাদেশে বিভিন্ন কৃষি-পরিবেশিক অঞ্চলে বিশেষ করে যশোর, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা এবং চট্টগ্রামে উপযোগিতা ও উৎপাদনশীলতা পরীক্ষার পর জাত নিবন্ধন করা হয়েছে।

ইস্ট ওয়েস্ট সিডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর দীলিপ রাজন বলেন, ‘ক্ষুদ্র চাষিরা এই দুর্যোগপূর্ণ মুহূর্তে প্রতিনিয়ত বীজের গুণগতমান এবং উৎপাদিত পণ্যের বাজারজাতকরণসহ বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে আসছেন। আমরা ইস্ট ওয়েস্ট সিড প্রতিকূল আবহাওয়া এবং রোগ ও পোকামাকড় সহনশীলতার সঙ্গে সঙ্গে অধিকতর উৎপাদনশীল হাইব্রিড জাত বাজারজাত শুরু করেছি যা আমাদের চাষিদের আরও ভালো অভিজ্ঞতা দেবে।’

এসিআই সিডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও ড. এফ. এইচ. আনসারি বলেন, ‘আমরা বিশ্বের সেরা সবজি বীজ প্রতিষ্ঠান ইস্ট ওয়েস্টের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত, যারা বিশ্বে সবজি ফসলের ওপরে গবেষণা ও উন্নয়নসহ বীজ উৎপাদন এবং বাজারজাতকরণে পথিকৃৎ। বাংলাদেশের বীজ শিল্পে আমাদের দীর্ঘ পদচারণার অভিজ্ঞতা থেকে আশা করছি, এই যুগলবন্ধী বাংলাদেশের ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষিদের যুগোপযোগী জাত সরবরাহের মাধ্যমে সারা দেশে সবজি উৎপাদন এবং চাষিদের আয় বৃদ্ধিতেও সহায়তা করবে।’

এফআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]