এক হাজার পর্বে দীপ্ত কৃষি

বিনোদন প্রতিবেদক
বিনোদন প্রতিবেদক বিনোদন প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৪৪ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০২০

দেশের জনপ্রিয় বেসরকারি টিভি চ্যানেলে ২০১৬ সালের ৭ জুন থেকে প্রচার হচ্ছে ‘দীপ্ত কৃষি’ নামের অনুষ্ঠান। কৃষির আদি ইতিহাস তুলে ধরাই এ অনুষ্ঠানের উদ্দেশ্য। সেই শুরু থেকে শুধুই সামনে এগিয়ে চলেছে এটি।

ধারাবাহিক পথচলায় এক হাজার পর্ব প্রচারে মাইলফলক ছুঁতে চলেছে ‘দীপ্ত কৃষি’। দেশের সমস্ত কৃষক, কৃষিজীবি, কৃষি গবেষক ও কৃষির সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে এ জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছে দীপ্ত টিভি।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দীপ্ত কৃষির জানালা দিয়ে বাংলাদেশর কৃষি খাতের অনেক সম্ভবনাময় ফসলের গল্প সামনে তুলে এনেছে অনুষ্ঠানটি। উঠে এসেছে নানামুখি সমস্যার বিচিত্র ঘটনা ও সমাধানের গল্পও। দীপ্ত কৃষির পর্দায় মানুষকে হাসতে দেখা গেছে, কাঁদতেও দেখা গেছে।

কৃষিখাতের নানামুখি সমস্যার সমাধানের উপায় খুঁজে পেতে আয়োজন করা হয়েছে গোল টেবিল বৈঠক, উঠান বৈঠক, কৃষকের নিত্যদিনের নানামুখি প্রশ্নের সমাধান দিতে ছিল সাপ্তাহিক আয়োজন কৃষি জিজ্ঞাসা। বিভিন্ন সময়ের ফসল ও খামারের করনীয় দিক নির্দেশনা দিয়েছে কৃষি বিশেষজ্ঞদের বিশেষ মতামত।

কৃষির শুরু হয়েছিল নারীদের হাত ধরে। কারণ দীপ্ত কৃষির অন্যতম একটি উদ্দেশ্য ছিল নারী উদ্যোক্তাদেরকে সামনে তুলে আনা। তাদের বেশি করে উৎসাহিত করা। এখানে তুলে আনা হয়েছে বগুড়ার মারিয়া গ্রামের নারীদের বীজ উৎপাদনের গল্প, এসেছে সাতক্ষীরার আকলিমা খাতুনের সফলতার গল্প।

এখানে তুলে ধরা হয়েছে ফরিদপুরের সাবিনা ইয়াসমিনের সফল খামারের গল্প। গুরুত্ব দিয়ে প্রচার করা হয়েছে রুবিনা আক্তারের মতো একজন সংগ্রামী নারীর গল্প। যিনি শুধুমাত্র কালো গায়ের রঙের জন্য শ্বশুর বাড়ি থেকে বিতারিত হয়েছিলেন এবং এরপর সমন্বিত কৃষি খামার গড়ে তুলে নিজেকে আপন মহিমায় উদ্ভাসিত করেছেন।

দীপ্ত কৃষি পথ চলেছে দুর্দান্ত এক টিম দিয়ে যেখানে রয়েছে এক ঝাক তরুণ কর্মী। যাদের মধ্যে প্রযোজক হিসেবে রয়েছেন মো. মাসুদ মিয়া, মাহামাুদুল হাসান মিথেন, প্রিতম মঞ্জুর, মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান অর্ক, কাজী ফাহিমুল হক অরিন ও শামীমা শাওন। এছাড়াও উপস্থাপনায় রয়েছেন শামীমা শাওন, মারুফা এনিন, ফারজানা রহমান তন্বী এবং সাকিনা ইসলাম ঈশিকা।

দীপ্ত টিভির প্রতিদিনের কৃষি বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘দীপ্ত কৃষি‘র ১০০০তম পর্বের বিশেষ পর্বটি প্রচারিত হবে আগামী ১৭ অক্টোবর শনিবার। দীপ্ত কৃষি প্রচারিত হচ্ছে শনি থেকে বৃহস্পতিবার প্রতিদিন বিকাল ৪টা ৩০মিনিটে।

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]