ছাদ বাগানের গাছ কেটে বিতর্কিত নারী

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:২৫ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৯

সম্প্রতি ছাদ বাগানের গাছ কেটে বিতর্কিত হয়েছেন এক নারী। ছাদে করা অন্যের বাগানের সব গাছ দা দিয়ে কেটে ফেলেন তিনি। সাভারের সিআরপি রোডের ভয়াবহ এ ভিডিও দেখে আঁৎকে উঠেছেন সবাই! গাছ কাটার সময় তা ভিডিও করেন গাছের মালিক। মুহূর্তেই সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এতে দেশজুড়ে নিন্দার ঝড় ওঠে। ভিডিও দেখে নানা রকম আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, এক নারী দা হাতে অন্য একজনের তৈরি করা ছাদ বাগানের সব গাছ কেটে সাফ করে দিচ্ছেন! গাছের মালিকের আকুতি-কান্না তাকে থামাতে পারছে না। সঙ্গে আছে তার ছেলে। ছাদে এলাকার কিছু ছেলেও দাঁড়িয়ে আছে! সুমাইয়া হাবিব নামের ভুক্তভোগী ওই নারী ফেসুবকে নিজের গাছের ওপর এমন বর্বর আচরণের ভিডিও আর বিবরণ পোস্ট করেন। একপর্যায়ে তাকে দা দিয়ে আঘাত করতে আসেন ওই নারী।

সুমাইয়া হাবিব লিখেছেন, ‘কখনো কি শুনছেন মানুষ গাছ অপছন্দ করে? গাছ পরিবেশ নষ্ট করে? এই মহিলার গাছ পছন্দ না। তার বক্তব্য আমাদের গাছ ছাদের পরিবেশ নষ্ট করে ফেলছে। তাই এই মহিলা আমাদের সব গাছ কেটে ফেলছে। কি অপরাধ ছিল গাছের? কি অপরাধ ছিল? কেউ বলতে পারবেন?’

জানা যায়, ওই নারীর স্বামীর নাম অ্যাডভোকেট সেলিম আলদীন। ছেলের নাম আব্দুল্লাহ আলদীন লিখন। ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর লাইভে আসেন লিখন। তিনি বলেন, ‘এক মাস আগে গাছ কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত হয়েছে। কিন্তু তিনি গাছগুলো কাটছিলেন না। এগুলো তার পারসোনাল গাছ। শাক-সবজি, তরিতরকারির গাছ। এগুলো তো ফুল গাছ না। ফুল গাছ হলে কথা ছিল। আপনারা ভিডিও দেখে জাজ করতেছেন। ভিডিওর আগে পরে কিছু না জেনে আমাকে আর আমার আম্মুকে গালিগালাজ করছেন- এটা ঠিক হচ্ছে না।’

সুমাইয়া হাবিব গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তারা আমাদের হিংসা করত। এখানে আমাদের দুইটা ফ্ল্যাট আর তাদের একটা। আমরা গাছ লাগাইছি দেখে তাদের গা জ্বলত। তাদের ছেলে মস্তানি করে। সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে ঘুরে বেড়ায়। সেই ছেলে আমাদের গাছ ভেঙে ফেলত। একদিন তাদের না করেছিলাম। আমি বলেছিলাম, যারা আমাদের গাছ ভাঙতেছে তাদের হাত যেন অবশ হয়ে যায়। এ জন্যই হয়তো শত্রুতা করল।’

এসইউ/এমকেএইচ