খেলাধুলা

শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দলে নেই অনেক বড় তারকা

দিনেশ চান্ডিমাল। চোখ বন্ধ করে এখনও শ্রীলঙ্কার অন্যতম সেরা তারকা। কিন্তু আশ্চর্যজনক হলেও সত্য, ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের দলেই রাখা হয়নি এই ক্রিকেটারকে। শুধু চান্ডিমালই নন, সাম্প্রতিক সময়ে শ্রীলঙ্কার হয়ে নিয়মিত পারফরম্যান্স করে যাওয়া অনেক তারকা ক্রিকেটারকে বাদ দেয়া হয়েছে বিশ্বকাপের দল থেকে।

বাদ দেয়া ক্রিকেটারদের মধ্যে রয়েছেন উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকভেলা, অফ স্পিনার আকিলা ধনঞ্জয়া, ওপেনার দানুসনা গুনাথিলাকা ও উপুল থারাঙ্গাকে রাখা হয়নি বিশ্বকাপের দলে।

সাম্প্রতিক সময়ের এসব পারফরমারকে বাদ দিয়ে দীর্ঘদিন জাতীয় দলে না থাকা লাহিরু থিরিমানে, মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, জীবন মেন্ডিস এবং জেফ্রি ভ্যান্ডারসিকে নেয়া হয়েছে বিশ্বকাপের দলে। ২০১৭ সালের পর এরা জাতীয় দলের হয়ে খেলেননি।

সুতরাং, বোঝাই যাচ্ছে, দল ঘোষণাতেই তুমুল বিতর্ক জড়িয়ে গেছে শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট। জানা কথা, জীবন মেন্ডিসরা কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের পছন্দের ক্রিকেটার। তাকে সম্প্রতি নির্বাচক কমিটি থেকে সরিয়ে দেয়া হলেও যে হাথুরুর প্রভাব অনেক বেশি এখনও সেটা এই দল ঘোষণাতেই বোঝা যাচ্ছে। তার অন্যতম বড় প্রমাণ চান্ডিমালের বাদ পড়া। কারণ, কোচ হাথুরুর সঙ্গে চান্ডিমালের সময়টা ভালো যাচ্ছে না।

বড় কয়েকজন তারকা বাদ পড়লেও বিশ্বকাপ দলে ঠিকই জায়গা পেয়েছেন ইনজুরির কারণে দলে অনিয়মিত পেসার নুয়ান প্রদীপ। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে নজর কাড়া ২১ বছর বয়সী ওপেনিং ব্যাটসম্যান অভিষেক ফার্নান্দো।

শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দল গঠনে নজর দেয়া হয়েছে সপ্তাহজুড়ে চলা ঘরোয়া টুর্নামেন্ট সুপার ফোর প্রোভিন্সিয়াল টুর্নামেন্টের পারফরম্যান্স দেখেই। যেমন, জীবন মেন্ডিস সেখানে তিন ম্যাচ নিয়েছেন ৬ উইকেট। এছাড়া একটি অপরাজিত হাফ সেঞ্চুরিও করেছিলেন। থিরিমানে ছিলেন টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান স্কোরার। যেখানে একটি সেঞ্চুরি এবং একটি ৮২ রানের ইনিংস রয়েছে।

জেফ্রি ভ্যান্ডারসি হচ্ছেন লঙ্কান স্কোয়াডে একমাত্র স্পিন স্পেশালিস্ট। ঘরোয়া টুর্নামেন্টে নিয়েছেন ৫ উইকেট। এছাড়া এর আগে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টেও দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছিলেন তিনি। তবে সিরিবর্ধনের দলে আসাটাই হচ্ছে এবার লঙ্কানদের বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সবচেয়ে বড় চমক। বিশেষ করে টেল এন্ডারে ভালো ব্যাটিং করার সামর্থ্যের জন্যই তাকে দলে নেয়া হয়েছে।

প্রধান নির্বাচক অসান্থা ডি মেল জানিয়েছেন, ‘দলের মধ্যে ভারসাম্য আনতেই ৬ নম্বরে ব্যাট করার জন্য নেয়া হয়েছে সিরিবর্ধনেকে। একই সঙ্গে দারুণ বোলিং পারফরম্যান্সও রয়েছে তার। এ কারণেই অবিজ্ঞ একজনের দিকেই ফিরতে হয়েছে আমাদের।’

১৫ সদস্যের শ্রীলঙ্কার বিশ্বকাপ দল

দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), লাসিথ মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ, থিসারা পেরেরা, কুশল পেরেরা, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, কুসল মেন্ডিস, ইসুরু উদানা, মিলিন্দা সিরিবর্ধনে, অভিষেক ফার্নান্দো, জীবন মেন্ডিস, লাহিরু থিরিমানে, জেফ্রি ভ্যান্ডারসি, নুয়ান প্রদীপ, সুরঙ্গা লাকমাল।

আইএইচএস/পিআর