আইন-আদালত

সাবেক স্বামী হত্যায় স্ত্রীসহ ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে সাবেক স্বামী মনির হোসেনকে হত্যায় স্ত্রী স্বর্ণা আক্তার ও তার বর্তমান স্বামী শরীফসহ চার জনের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- আনোয়ার হোসেন মোল্লা, স্বর্ণা আক্তার কাকলী, মো. শরীফ মাতুব্বর ও ইব্রাহিম খলিল। তাদের মধ্যে আনোয়ার হোসেন মোল্লা ও স্বর্ণা আক্তার কাকলী রায় ঘোষণার সময় ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, স্বর্ণা আক্তারের সঙ্গে মনির হোসেনের বিয়ে হয়। মনির হোসেন জমি ক্রয় বিক্রয়ের ব্যবসা করতেন। আর স্বর্ণা আক্তার দেহ ব্যবসা করতেন। দেহ ব্যবসার সুবাধে মনিরের সঙ্গে স্বর্ণার পরিচয়। বিয়ের দুই বছর পর মনিরকে তালাক দেন স্বর্ণা। তালাকের পর প্রায় স্বর্ণাকে বিরক্ত করতো মনির। স্বর্ণা এরমধ্যে তার আরেক খদ্দের শরীফকে বিয়ে করে।

২০১৩ সালের ১৭ এপ্রিল আনোয়ার ও ইব্রাহিম খদ্দের হিসাবে স্বর্ণার হুজুর পাড়ার বাসায় আসে। তখন তার স্বামী শরীফও বাসায় ছিল। তারা টাকার বিনিময় কাজ করে ইয়াবা সেবন করেন। এ সময় স্বর্ণা মনিরকে ফোন করে। মনির তাদের বাসায় এসে স্বর্ণার কাছে স্বর্ণের চেইন ও টাকা চায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে তুমুল ঝগড়া বাধে। এক পর্যায়ে তারা মনিরকে বালিশ চেপে ধরে গলা কেটে হত্যা করে।

এ ঘটনায় মনিরের বর্তমান স্ত্রী হাসিনা বেগম কামরাঙ্গীরচর থানায় মামলা করলে একই বছরের ১৪ মে চার জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আসামি স্বর্ণা আক্তার, শরীফ ও আনোয়ার ঘটনার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। একই বছরের ১৯ অক্টোবর আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন ট্রাইব্যুনাল। মামলায় ৩৯ সাক্ষীর মধ্যে বিভিন্ন সময় ২৩ জন সাক্ষ্য দেন।

জেএ/এএইচ/আরআইপি