জাতীয়

স্বাধীনতার ৫০ বছর উদযাপনে উদ্বোধন হবে উড়াল মেট্রোরেল

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপনে ২০২১ সালের ১৬ ডিসেম্বর দেশের প্রথম উড়াল মেট্রোরেলের সম্পূর্ণ অংশ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধনের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার।

বুধবার সংসদে টেবিলে উত্থাপিত সরকারদলীয় এমপি এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিভিন্ন সমীক্ষা ও উন্নয়ন সহযোগী সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী যানবাহনের তুলনায় জনসংখ্যার আধিক্য, অপর্যাপ্ত সড়ক সুবিধা ও মিশ্র যানবাহনের কারণে ঢাকা মহানগরীতে যানজট সৃষ্টি হয়ে যাতায়াতে অতিরিক্ত সময় ব্যয় হচ্ছে। এতে জ্বালানি খরচ বৃদ্ধি পেয়ে ও কর্মঘণ্টা নষ্ট হয়ে আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে।

রাজধানী ঢাকা মহানগরী ও তৎসংলগ্ন পার্শ্ববর্তী এলাকার যানজট নিরসন ও পরিবেশ উন্নয়নে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার ঢাকা ম্যাস ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) আওতায় ২০৩০ সালের মধ্যে ৬টি মেট্রোরেল সমন্বয়ে একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার জন্য কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। কর্মপরিকল্পনা অনুসরণে প্রায় ২২ হাজার কোটি টাকা প্রাক্কলিক ব্যয়ে উত্তরা ৩য় পর্ব থেকে বাংলাদেশ ব্যাংক পর্যন্ত ২০.১০ কিলোমিটার দীর্ঘ ১৬ স্টেশনবিশিষ্ট উভয় দিকে ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী পরিবহনে সক্ষম আধুনিক, সময় সাশ্রয়ী, পরিবেশবান্ধব ও বিদ্যুৎচালিত ম্যাস র‌্যাপিড ট্রান্সজিট (এমআরটি) নির্মাণের লক্ষ্যে ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিড ট্রানজিট ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট (লাইন-৬) বা বাংলাদেশের প্রথম উড়াল মেট্রোরেল নির্মাণকাজ পুরোদমে এগিয়ে চলছে।

গত ৩১ মে পর্যন্ত এ প্রকল্পের গড় অগ্রগতি ২৪.৬৯ শতাংশ। প্রথম পর্যায়ের নির্মাণের উত্তরা তৃতীয় পর্ব থেকে আগারগাঁও অংশের পূর্ত কাজের অগ্রগতি ৪০.৫৮ শতাংশ। ইতোমধ্যে ৫ কিলোমিটার ভায়াডাক্ট দৃশ্যমান হয়েছে। স্বাধীনতার সুর্বণজয়ন্তীতে এ প্রকল্পের প্রথম উড়ল মেট্রোরেলের উদ্বোধন করার বিষয়ে পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

এইচএস/এনডিএস/এমএস