আন্তর্জাতিক

বেফাঁস মন্তব্য করায় মন্ত্রীর বাড়ির সামনে কাঁকড়া ছেড়ে প্রতিবাদ

ভারতের মহারাষ্ট্রের ভারী বর্ষণে বাঁধ ভেঙে আকস্মিক বন্যায় অন্তত ১৯ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। রাজ্যের বিজেপি নেতৃত্বাধীন সরকারের পানি সংরক্ষণবিষয়ক মন্ত্রী বাধঁ ভেঙে যাওয়ার ঘটনায় কাঁকড়ার ওপর দায় চাপিয়েছেন। কাঁকড়া গর্ত করায় বাঁধ ভেঙে গেছে, তার এমন যুক্তির পর অভিনব প্রতিবাদের মুখে পড়েছেন এই মন্ত্রী।

তার বাড়ির সামনে এক বস্তা জীবন্ত কাঁকড়া ছেড়ে ওই মন্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় একটি রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা।

দেশটির একটি দৈনিক বলছে, অতিরিক্ত বৃষ্টির পানির চাপে মহারাষ্ট্রের রত্নাগিরিতে বাঁধ ভেঙে অন্তত ১৯ জনের মৃত্যু হয়। এরপর মহারাষ্ট্রের পানি সংরক্ষণ মন্ত্রী শিবসেনার তানাজি সবন্ত বলেন, কাঁকড়ার জন্য ওই বাঁধের ক্ষতি হয়েছে, তাই বাঁধ ভেঙেছে। এই মন্তব্যের প্রতিবাদ জানায় ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টি (এনসিপি)। তারা মঙ্গলবার এক অভিনব প্রতিবাদ করেন।

আরও পড়ুন : নায়াগ্রার ১৮৮ ফুট উঁচু থেকে পড়েও বেঁচে গেলেন তিনি

এক বস্তা জ্যান্ত কাঁকড়া নিয়ে গিয়ে মন্ত্রীর বাড়ির সামনে ছেড়ে প্রতিবাদ করেন। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। এর আগে, গত সপ্তাহে এনসিপি কর্মীরা কাঁকড়া নিয়ে নাওপাড়া থানায় যান।সেখানে গিয়ে পুলিশকে বলেন, এদের জন্যই যখন বাঁধ ভেঙেছে, তাহলে কাঁকড়াদের গ্রেফতার করা হোক।

এনসিপির এক নেতা অভিযোগ করে বলেছেন, বিজেপি নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকার বাঁধ প্রস্তুতকারী ঠিকাদারকে বাঁচাতেই কাঁকড়ার গল্প বলছে।

এনসিপির যুব শাখার সদস্যরা শাহুপুরি থানায় গিয়ে দাবি করেন,বাঁধ ভাঙার জন্য যদি কাঁকড়া দায়ী হয়, তবে কাঁকড়ার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হোক। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ধারায় খুনের মামলা দায়েরের দাবিও করা হয় কাঁকড়াদের বিরুদ্ধে।

#WATCH: NCP workers stage protest and threw crabs outside the residence of Maharashtra Water Conservation Minister Tanaji Sawant in Pune against his statement on Ratnagiri's Tiware dam breach. The Minister had said that crabs were responsible for the breach in the dam. pic.twitter.com/7wbsT8yGIs

— ANI (@ANI) July 9, 2019

এসআইএস/পিআর