তথ্যপ্রযুক্তি

অ্যাপ দিয়ে ভিক্ষা করছেন তারা!

আল্লাহর নামে কিছু দেন বাবা! রাস্তায়, বাসে, ট্রেনে প্রায়শই এই বক্তব্য আমাদের কানে আসে। এভাবেই হাত পেতে টাকা চান এদেশের ভিক্ষুকরা। এক টাকা, দু’টাকা দিলে বা খুচরার সমস্যার জন্য টাকা দিতে না পারলে, অনেকে সময় এরা রেগে যায়। দু-চারটে কথাও শুনিয়ে দেয়। কিন্তু জানেন, চীন এই সমস্যা সমাধানের রাস্তা খুঁজে পেয়েছে। কীভাবে?

জানা গেছে, সেদেশের ভিখারিরা নাকি আর নগদে ভিক্ষা নিচ্ছেন না। প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মিলিয়ে আজকাল নাকি তাঁরা ক্যাশলেস লেনদেনের উপর ভরসা করছেন। আইপে'র মতো অ্যাপের মাধ্যমে ভিক্ষা গ্রহণ করছেন তাঁরা। সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে চীনা ভিখারিদের ভিক্ষা নেওয়ার এই নয়া পন্থা। যাকে ঘিরে আন্তর্জাতিক মহলে তৈরি হয়েছে প্রবল কৌতূহল।

সম্প্রতি প্রকাশিত কয়েকটি ছবিতে দেখা গেছে, সেদেশের প্রত্যেক ভিখারির গলায় ঝোলানো রয়েছে নির্দিষ্ট কিউআর কোডযুক্ত ব্যাজ এবং সেই কোড স্ক্যান করে নিজের ইচ্ছামতো অর্থ ওই ভিখারির ই-ওয়ালেটে ট্রান্সফার করছেন ভিক্ষাদাতারা। সেক্ষেত্রে পোহাতে হয় না কোনও নগদের ঝামেলা। পাশাপাশি, চটজলদি হচ্ছে লেনদেন।

নগদহীন লেনদেনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশে যেমন আইপে, ইউপে’র মতো অ্যাপগুলোর ব্যবহার হয়ে থাকে। তেমনই চীনা ভিখারিরা ব্যবহার করছেন আলিবাবা সংস্থার তৈরি আলি পে অ্যাপটি। অনেকে আবার ব্যবহার করছেন উইচ্যাট ওয়ালেট। সবক্ষেত্রেই ব্যবহারের নিয়ম একই। কিউআর কোড স্ক্যান করে ই-ওয়ালেটে জমা করতে হবে নির্দিষ্ট অর্থ। চীনা ভিখারিদের ভিক্ষা নেওয়ার এই অভিনব পদ্ধতিই বর্তমানে মন কেড়েছে নেটিজেনদের।

এএ