দেশজুড়ে

সাড়ে ১০ লাখ টাকা উত্তোলনের সময় তিনজন ধরা

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর সোনালী ব্যাংক শাখায় তিনটি জাল চেক দিয়ে ব্যাংক কাউন্টার থেকে সাড়ে ১০ লাখ টাকা উত্তোলনকালে তিন প্রতারককে আটক করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় এক প্রতারক কৌশলে ব্যাংক থেকে পালিয়ে যায়। আটক তিন প্রতারকের কাছ থেকে টাকা, সোনালী ব্যাংকের বিভিন্ন শাখার সিল মোহর, চেকবই ও তাদের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়েছে।

আটকরা হলেন- মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার মির্জার চর গ্রামের মোতালেব হোসেনের ছেলে আবু বকর (৩০), সরকার চর গ্রামের মৃত আনোয়ার ফকিরের ছেলে জামাল হোসেন (৩২) ও প্রাইভেট কার চালক রাজৈর উপজেলার আমগ্রামের হাজী নূরু ব্যাপারীর ছেলে জাকির হোসেনকে (৪০)।

সোনালী ব্যাংক জীবননগর শাখার ব্যবস্থাপক আরিফুজ্জামান ও জীবননগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ গনি মিয়া জানান, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দুইজন বাহক ব্যাংকের ক্যাশ কাউন্টারে নগদ প্রদান সিল ও অফিসারের কেটে দেয়া স্বাক্ষর যুক্ত তিনটি চেক দিয়ে টাকা উত্তোলনের চেষ্টা করে। বিষয়টি ক্যাশ অফিসারের সন্দেহ হলে তাদেরকে জিজ্ঞাসা করতেই তিন প্রতারক পালানোর চেষ্টা করে। এর মধ্যে এক প্রতারক লাফ দিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও অন্য দুইজনকে আটক করে উপস্থিত জনতা। পরে পুলিশ এসে তাদেরকে আটক করে। এ সময় আটকদের নিকট থেকে সোনালী ব্যাংক বিভিন্ন শাখার সিল মোহর, একটি চেক বই, ৫৪ হাজার ৭৪০ টাকা উদ্ধার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তিতে বাসস্ট্যান্ডে অবস্থান করা প্রাইভেট কার চালককে কারসহ আটক করা হয়।

ওসি শেখ গনি মিয়া জানান, তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইন্সে নেয়া হয়েছে।

সালাউদ্দীন কাজল/আরএআর/পিআর