জাতীয়

রোহিঙ্গাদের নিয়ে মেম্বারের ইয়াবা ব্যবসা!

চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে দেড় হাজার ইয়াবাসহ স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ (মেম্বার) দুজনকে গ্রেফতার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) গভীর রাতে তাদের গ্রেফতার করা হলেও বুধবার (২১ আগস্নট) বিকেলে অধিদফতরের পক্ষ থেকে বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানানো হয়।

গ্রেফতার নেজাম উদ্দিন (৫২) পটিয়ার কুসুমপুরা ইউপি সদস্য ও ওই ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে। এ সময় তার সঙ্গে থাকা রোহিঙ্গা নাগরিক হামিদ হোসেন (২৮) গ্রেফতার হয়। তিনি কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পের মৃত আজিজুর রহমানের ছেলে।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর চট্টগ্রাম ‘খ’জোনের সহকারী উপ পরিদর্শক একেএম আজাদ উদ্দিন জাগো নিউজকে জানান, পটিয়ার কুসুমপুরা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নেজাম উদ্দিন অরফে নেজাম মেম্বার দীর্ঘদিন ধরে রোহিঙ্গা নগরিকদের জোগসাজসে ইয়াবার ব্যবসা করে আসছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার গভীর রাতে তাকে এক রোহিঙ্গা সহযোগীসহ গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের কাছে তথ্য ছিল, এক সময় ডেইরি ফার্ম করার সুযোগে গরু আনতে মিয়ানমার আসা-যাওয়া করতেন নেজাম। সেই সুযোগে ইয়াবা ব্যবসায় শুরু করে সে। মঙ্গলবার রাতে ১৫০০ ইয়াবা নিয়ে এক রোহিঙ্গা নাগরিকসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে চন্দনাইশ থানায় মাদক আইনে মামলা করে তাকে থানা হেফাজতে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

আবু আজাদ/এএইচ/এমএস