প্রবাস

প্রশিক্ষণ ছাড়া কর্মী পাঠালেই ব্যবস্থা

প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ছাড়া কোনো রিক্রুটিং এজেন্সি বিদেশে কর্মী পাঠালে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে সতর্ক করেছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ।

সৌদি আরবের রিয়াদে সোমবার বিভিন্ন জনশক্তি নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের সাথে বাংলাদেশের দক্ষ, আধাদক্ষ জনশক্তি নিয়োগের বিষয়ে আয়োজিত এক সেমিনারে এসব বলেন তিনি।

সৌদি আরবের বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ দূতাবাসের শ্রম কল্যাণ উইং আয়োজিত সেমিনারে আরও উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের উপ-মিশন প্রধান ড. নজরুল ইসলাম। মন্ত্রী বলেন, প্রশিক্ষণ ছাড়া বিদেশ গেলে কর্মীরা সমস্যা পড়ছে। তাই দক্ষ কর্মী পাঠানোর বিষয়ে গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার।

সৌদি আরবে বাংলাদেশের জনশক্তি নিয়োগের প্রক্রিয়া সহজ করা এবং অভিবাসন ব্যয় কমানোর লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে বলেও উল্লেখ করেন ইমরান আহমদ।

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলেন, সৌদি আরবের সাথে বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে, আমরা চাই আগামী দিনে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার মাধ্যমে এ সম্পর্ক আরও দৃঢ় হবে।

তিনি সৌদি নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানসমূহকে তাদের চাহিদা জানানোর জন্য অনুরোধ করেন যাতে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ প্রদান করে জনশক্তি রফতানি করা সম্ভব হয়। ইমরান আহমদ বলেন, জনশক্তি রফতানি প্রক্রিয়া আরো সহজ ও দ্রুত করার লক্ষ্যে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হবে।

সভার শুরুতে বাংলাদেশের বিভিন্ন সেক্টরে দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনশক্তির বিষয়ে বিস্তারিত উপস্থাপনা করেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব জাহিদ হোসেন ও সারওয়ার আলম। দূতাবাসের কর্মকর্তারা সেমিনারে যোগ দেন।

সেমিনারে সৌদি আরবে বাংলাদেশের জনশক্তি নিয়োগকারী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৪০ জন প্রতিনিধি অংশ নেয়। উল্লেখযোগ্য, নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান সমূহের মধ্যে আল বাওয়ানী কোম্পানি, হারফি ফুড সার্ভিস লিমিটেড, সামাসকো, আরকো, তেজারত কোম্পানি, আল জাযিরা কোম্পানি, হামেদ সাউদ আল উতাইবী, সিডার কোম্পানি, আলফাহাদ, শাফরজি পালনজি কোম্পানি। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা বাংলাদেশ থেকে দক্ষ, আধাদক্ষ জনশক্তি নিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেন।

জেপি/এমআরএম