আন্তর্জাতিক

নতুন নিরাপত্তা উপদেষ্টা নিয়োগ দিলেন ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার নতুন নিরাপত্তা উপদেষ্টা নিয়োগ দিয়েছেন। গত সপ্তাহে তিনি সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনকে বরখাস্ত করেন। ইরান, আফগানিস্তান ও ভেনেজুয়েলাসহ বেশ কিছু ইস্যুতে মতবিরোধের জেরে তাকে পদত্যাগ করতে বলেন ট্রাম্প।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, নতুন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে রবার্ট ও ব্রেইনকে নিয়োগ দিয়েছেন ট্রাম্প। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ দূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন ও ব্রেইন। ট্রাম্পের চতুর্থ নিরাপত্তা উপদেষ্টা হলেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ ও বারাক ওবামার প্রশাসনেও গুরুত্বপূর্ণ পদে কাজ করেছেন সদ্য নিয়োগ পাওয়া মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা। তাকে নিয়োগ দেয়ার জন্য দেশটির পার্লামেন্ট কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের অনুমোদনের প্রয়োজন হবে না।

রবার্ট ও ব্রেইন মার্কিন সেনাবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা। ২০০৫ সালে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ তাকে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে মার্কিন প্রতিনিধি হিসেবে নিয়োগ দেন। জাতিসংঘে তিনি বোল্টনের সঙ্গেও কাজ করেছিলেন। তখন বোল্টন ছিলেন জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন, ‘আমাদের নতুন জাতীয় নিরাপত্তা হিসেবে রবার্ট ও ব্রেইনের নাম ঘোষা করে আমি খুব আনন্দিত। তিনি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ দূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন। তার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে আমি কাজ করছি। সে খুব দারুণ কিছু করবে।’

গত বছরের ২৩ মার্চ জন বোল্টনকে জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা পদে নিয়োগ দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ট্রাম্প তখন বলেছিলেন, বোল্টন তার পছন্দের ব্যক্তি। বোল্টনের আগে এইচ আর ম্যাকমাস্টার ও মাইকেল ফ্লিন ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

I am pleased to announce that I will name Robert C. O’Brien, currently serving as the very successful Special Presidential Envoy for Hostage Affairs at the State Department, as our new National Security Advisor. I have worked long & hard with Robert. He will do a great job!

— Donald J. Trump (@realDonaldTrump) September 18, 2019

এসএ/পিআর