আইন-আদালত

অভিনেত্রী নওশাবার মামলা স্থগিতের আদেশ আপিলেও বহাল

সড়কে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন নিয়ে ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের বিরুদ্ধে মামলা স্থগিত করে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে রোববার (৮ ডিসেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বিভাগের বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আদালতে আজ নওশাবার পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার জ্যোর্তিময় বড়ুয়া। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

এর আগে গত ২০ নভেম্বর অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের বিরুদ্ধে মামলার কার্যক্রম ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

পরে এই আদেশ স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি নওশাবা আহমেদকে স্থায়ী জামিন দেন নিম্ন আদালত।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত বছরের ৪ আগস্ট কাজী নওশাবা নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে অত্যন্ত আবেগী কণ্ঠে লাইভ ভিডিও সম্প্রচার করে বলেন, ‘জিগাতলায় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা করে একজনের চোখ উঠিয়ে ফেলেছে এবং চারজনকে মেরে ফেলেছে। আপনারা যে যেখানে আছেন কিছু একটা করুন।’

জিগাতলায় এ ধরনের ঘটনা নিয়ে তার এ ভিডিও মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়। ওইদিনই রাজধানীর উত্তরার বাসা থেকে তাকে আটক করে র‌্যাব।

এ ঘটনায় ওই বছরের ৫ আগস্ট তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি আইনে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়।

এফএইচ/এসআর/এমএস