আইন-আদালত

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট কার্যক্রমে ব্যবস্থাপকসহ দুই পদে নিয়োগ স্থগিত

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর উৎক্ষেপণ পরবর্তী কার্যক্রম চালনায় নিয়োজিত বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেডে (বিসিএসসিএল) সহকারী ব্যবস্থাপক (গ্রাহক সেবা) পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির কার্যকারিতা এক মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে রুল জারি করেছেন আদালত।

রুলে আবেদনকারীদের কেন নিয়োগ দেয়া হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, অর্থ সচিব, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনসহ (বিটিআরসি) পাঁচজনকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার (৯ ডিসেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আজ রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার মুহাম্মদ খুররম শাহ মুরাদ এবং তার সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার সাইয়েদুল হক সুমন, আইনজীবী এম লিটন আহমেদ ও জহিরুল ইসলাম।

ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন জানান, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর উৎক্ষেপণ পরবর্তী কার্যক্রম চালনা, স্থল স্টেশন থেকে উপগ্রহকে নিয়ন্ত্রণ করা, বিপণন ও বিক্রয় সেবা ইত্যাদির জন্য কোম্পানিটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।

এর আগে এ প্রকল্পে কর্মরত ছিলেন প্রকল্পের সিভিল প্রকৌশলী রায়হানুল কবির, কাস্টমার সার্ভিস শাখার গাজী মো. নাজমুস সাকিব ও হিসাবরক্ষক তরফদার মোহাম্মদ রেজওয়ান। পরে তাদেরকে বিদেশে প্রশিক্ষণও দেয়া হয়। এর মধ্যে কোম্পানি গঠিত হলেও তাদের নিয়োগ না দিয়ে নতুন করে নভেম্বরে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়।

ওই বিজ্ঞপ্তির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট দায়ের করেন। আদালত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির কার্যকারিত এক মাসের জন্য স্থগিত করে রুল জারি করেন। রুলে তাদের নিয়োগ না দেয়া নিষ্ক্রিয়তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আদালত।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব, অর্থ সচিব, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনসহ (বিটিআরসি) সংশ্লিষ্টদের এ রুলের জবাব দিতে হবে বলে জানান ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

এফএইচ/আরএস/এমকেএইচ