জাতীয়

আইন-শৃঙ্খলা সমন্বয় ও মনিটরিং সেল গঠনে ইসির নির্দেশ

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন উপলক্ষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি ও বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সমন্বয়ে একটি আইন-শৃঙ্খলা সমন্বয় ও মনিটরিং সেল গঠনের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ১ ফেব্রুয়ারি (শনিবার) ঢাকার দুই সিটিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

Advertisement

ইসি সূত্র জানায়, কমিটি গঠন করতে গত বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) নির্দেশ দিয়েছে কমিশন। এই কমিটি কেবল ভোটগ্রহণের দিন দায়িত্ব পালন করবে। তবে প্রয়োজনে নির্বাচনের পর আরও ২/১ দিন অব্যাহত থাকতে পারে তাদের কার্যক্রম।

কমিটির কাজ হবে নির্বাচনের দিন আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করা; সেলে অন্তর্ভুক্ত সংশ্লিষ্ট সংস্থার প্রতিনিধিরা নির্বাচন উপলক্ষে মোতায়েন করা আইন-শৃঙ্খলা সদস্যদের অবস্থান ও সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে জ্ঞাতকরণ; সংস্থার নিজস্ব যোগাযোগ নেটওয়ার্কের মাধ্যমে কমিশনের নির্দেশনা তাৎক্ষণিকভাবে অবহিতকরণ; ভোটকেন্দ্র বা নির্বাচনী এলাকায় শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় সাধন এবং ইভিএম-সহ বিভিন্ন নির্বাচনী মালামাল পরিবহন, বিতরণ এবং ভোটগ্রহণ কাজে নিরাপত্তা বিধানের জন্য মোবাইল ও স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে নিয়োজিত আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর মধ্যে সমন্বয় করে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের সহায়তা প্রদান করা।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব পদমর্যাদার নিচে নয় এমন একজন, পুলিশ হেডকোয়াটার্সের পুলিশ সুপার/অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদমর্যাদার নিচে নয় এমন একজন, বিজিবি/র‌্যাব/আনসার ও ভিডিপির মেজর/উপ-পরিচালক পদমর্যাদার নিচে নয় এমন একজন এবং আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার/সহকারী পুলিশ সুপার পদমর্যাদার নিচে নয় এমন একজন কর্মকর্তাদের নিয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।

Advertisement

আইন-শৃঙ্খলা সমন্বয় ও মনিটরিং সেলের নেতৃত্বে থাকবেন ইসি সচিবালয়ের জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম। গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে শুরু করে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনগুলোতে সাইদুল ইসলামকে এই সেলের নেতৃত্বে রাখা হচ্ছে।

পিডি/আরএস/জেআইএম