শিক্ষা

চলতি সপ্তাহ থেকে প্রাথমিকের টেলিভিশনে ক্লাস সম্প্রচার

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। ছুটির দিনগুলোতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য টেলিভিশন শ্রেণি পাঠদান শুরু করতে যাচ্ছে সরকার। চলতি সপ্তাহ থেকে সংসদ বাংলাদেশ টেলিভিশনের মাধ্যমে এসব ক্লাস সম্প্রচার শুরু করা হবে বলে জানা গেছে। রোববার থেকে মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের জন্যও একই ধররে পাঠদান শুরু হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. ফসিউল্লাহ সোমবার জাগো নিউজকে বলেন, ছুটির দিনগুলোতে শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম চালিয়ে যেতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪০ জন সিনিয়র শিক্ষকের মাধ্যমে ভিডিও ধারণ করে তা সংসদ টেলিভিশনে প্রতিদিন সম্প্রচার করা হবে। এটুআই প্রকল্পের মাধ্যমে গত ২৫ মার্চ থেকে এ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। চলতি সপ্তাহ থেকে এটি সম্প্রচার শুরু করা হবে।

মহাপরিচালক বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানোর চিন্তা-ভাবনা থেকে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য টেলিভিশনে শ্রেণি পাঠদান প্রচারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রথম থেকে দ্বিতীয় শ্রেণির জন্য ভিডিও আকারে বর্ণ শেখা ও রিডিং পড়া শেখানো হবে।

অন্যদিকে তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সিলেবাস অনুযায়ী শিক্ষকদের মাধ্যমে ভিডিও ধারণ করে ক্লাস নেয়া, ও বিভিন্ন প্রশ্নোত্তর শিখতে হোম ওয়ার্ক (বাসার কাজ) দেয়া হবে। পরদিন শিক্ষার্থীদের হোম ওয়ার্ক সঠিক করে দেবে শিক্ষকরা।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও টেলিভিশনের মাধ্যমে পাঠদান কার্যক্রমকে বাস্তবসম্মত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। প্রচারের সময়সূচি নির্ধারণ করতে আজ সোমবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষজ্ঞদের নিয়ে সভা করা হবে। সেখানে বিভিন্ন বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

গতকাল রোববার থেকে মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষার্থীদের জন্য টেলিভিশনে শ্রেণি ক্লাসের পাঠদান শুরু করা হয়েছে। প্রতিদিন ৬ষ্ঠ থেকে ১০ শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য আটটি ক্লাস নেয়া হচ্ছে। প্রতিটি ক্লাসের জন্য ২০ মিনিট সময় সম্প্রচার করা হচ্ছে। পাশাপাশি পরদিনের জন্য হোম ওয়ার্ক দেয়া হচ্ছে।

এমএইচএম/এনএফ/এমকেএইচ