আন্তর্জাতিক

চীন থেকে আসা ভয়াবহ প্লেগকে পরাজিত করছে যুক্তরাষ্ট্র: ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, চীন থেকে আসা ‘ভয়াবগ প্লেগকে’ হারিয়ে ‘অসাধারণ এক জয়ের পথে’ এগিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তিনি জাতির উদ্দেশে এমন বার্তা দিলেন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবসের (৪ জুলাই) ভাষণে। অথচ গতদিনে যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড সর্বোচ্চ কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। খবর বিবিসির।

চৌঠা জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে প্রতি বছরই বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে বিভিন্ন এলাকায় গোটা জুন মাস ধরে চলে আতশবাজি, কিন্তু এ বছর তার কিছু নেই। জনস্বাস্থ্যের বিষয়টি বিবেচনা করে স্বাধীনতা দিবসের সব অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে। ফ্লোরিডা ও ক্যালিফোর্নিয়ায় সৈকত বন্ধ, শহরে শহরে প্যারেডও বাতিল।

অর্থনীতি নাজুক অবস্থায় চলে যাওয়া একং দুই কোটিরও বেশি আমেরিকান কর্মহীন হয়ে পড়ার মধ্যেও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত হোয়াইট হাউসে ট্রাম্পের দেয়া পার্টিতে শতাধিক মানুষের অংশগ্রহণের কথা রয়েছে। ট্রাম্প বলছেন, ‘ভাইরাসটিকে পরাজিত করার খুব কাছাকাছি চলে এসেছি আমরা, চাকরির সংখ্যাও দেখার মতো।’

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রে ৫২ হাজার ৩০০ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে; যা ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব শুরুর পর একদিনে সর্বোচ্চ। ফ্লোরিডা, যেখানে করোনার সংক্রমণ পরিস্থিতি এখন সবচেয়ে ভয়াবহ, শনিবার ওই রাজ্যটিতেই ১১ হাজার ৪৫৮ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ৫০টি অঙ্গরাজ্যের মধ্যে ৩৯টিতেই করোনার সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। অন্তত পাঁচটি রাজ্য; আলাবামা, আলাস্কা, কানসাস, নর্থ ক্যারোলিনা এবং সাউথ ক্যারোলিনা গত শুক্রবার একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণের রেকর্ড হয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে মার্কিন দৈনিক নিউইয়র্ক টাইমস।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা এখন এক লাখ ৩০ হাজার প্রায়। বিশ্বের যেকোনো দেশের চেয়ে যা সর্বোচ্চ এবং দেশটির ২৮ লাখ মানুষের দেহে করোনাভাইরাস তার সংক্রমণ ঘটিয়েছে।

এসএ