দেশজুড়ে

আজমিরীগঞ্জে নদীর পানি বৃদ্ধি, বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল এবং কয়েকদিনের টানা ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে কালনী, কুশিয়ারাসহ বিভিন্ন নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এসব নদীতে প্রতিনিয়তই পানি বাড়ছে। অব্যাহতভাবে পানি বৃদ্ধির কারণে প্লাবিত হয়েছে উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের রাস্তা-ঘাটসহ নিচু এলাকার বেশকিছু বাড়িঘর। এতে ভাটি এলাকায় বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, জেলার ভাটি এলাকা হিসেবে খ্যাত বানিয়াচং, আজমিরীগঞ্জ, লাখাই ও নবীগঞ্জ উপজেলার আংশিক। হাওরবেষ্টিত এসব এলাকায় সাম্প্রতিক ভারি বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। জেলার নদ, নদীগুলোতেও পানি বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। ফলে ভাটি এলাকার অনেক রাস্তাঘাটই বানের পানিতে তলিয়ে গেছে। নিচু এলাকার কিছু বাড়িঘরেও পানি উঠেছে। অনেক স্থানেই বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী এমএল সৈকত জানান, হাওরে স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায়ই পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখন বর্ষা মৌসুম। তাই এখন পানি বৃদ্ধি পাবে। এটাই স্বাভাবিক। ভারতের ত্রিপুরায় গেট খুলে দেয়া হয়েছে। তাই খোয়াই নদীতেও পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে সোমবার বিকেল ৩টায় খোয়াই নদীতে বাল্লা পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ২২০ সেন্টিমিটার এবং কুশিয়ারা নদীর পানি শেরপুর পয়েন্টে বিপদসীমার ১৮ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন/এমআরএম