আন্তর্জাতিক

আফগানিস্তানে কারাগারে আইএস এর হামলা, নিহত ২৯

আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় শহর জালালাবাদে একটি কারাগারে হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ২৯ জন নিহত হয়েছেন। হামলার পর কারাগার থেকে পালানোর চেষ্টা করেন সহস্রাধিক কয়েদি। বিবিসির প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়ে বলা হচ্ছে, জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

Advertisement

স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যায় কারাগারের প্রবেশপথে একজন বন্দুকধারী গাড়িতে রাখা বোমার বিস্ফোরণ ঘটানোর পর হামলার সূত্রপাত। নানগারহার প্রদেশের সরকারি মুখপাত্র জানিয়েছেন, হামলার পর নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে চলা প্রায় ২০ ঘণ্টার লড়াই শেষে হামলাকারীদের আটজন নিহত হন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, কারাগারের প্রবেশ পথে গাড়িবোমা বিস্ফোরিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আইএস জঙ্গিরা নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে শুরু করেন। এ সময় আরও কয়েকটি বিস্ফোরণের শব্দও শোনা যায় বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে হামলার পর কারগার থেকে পালানো প্রায় তিনশো জন কয়েদি এখনও ফেরারি রয়েছেন। যখন হামলার ঘটনাটি ঘটে তখন কারগারে থাকা বন্দির সংখ্যা ছিল ১ হাজার ৭৯৩ জন। নিরাপত্তা সূত্রের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, সেখানে থাকা কয়েদিদের মধ্যে বেশিরভাগ তালেবান ও আইএস এর সদস্য।

তবে বিশেষ কোনো কয়েদিদের মুক্ত করার জন্যই হামলাটি করা হয়েছে কিনা তাৎক্ষণিকভাবে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। প্রাদেশিক সরকারের মুখপাত্র জানিয়েছেন, হামলার পর পালিয়ে যাওয়া ১ হাজার ২৫ জন কয়েদিকে কারাগারে ফেরত আনা হয়েছে। উদ্ধার করা হয়েছে ৪৩০ জনকে। এ ছাড়া অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন।

Advertisement

আফগানিস্তানে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আইএসের তৎপরতা বেড়েছে। দেশটিতে এখনও জঙ্গি গোষ্ঠীটির প্রায় ২ হাজার ২০০ সদস্য সক্রিয় বলে গত মাসে জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে ধারণা দেওয়া হয়েছে।

এসএ