খেলাধুলা

চেলসি ছাড়ার পরই ব্রাজিলিয়ান তারকাকে লুফে নিল আর্সেনাল

ক্লাব বদলাতে হচ্ছে, কিন্তু লন্ডন ছাড়তে হচ্ছে না উইলিয়ানকে। চেলসির সঙ্গে চুক্তি শেষ হওয়ার পরপরই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের আরেক ক্লাব আর্সেনাল লুফে নিয়েছে ৩২ বছর বয়সী এই ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গারকে। নতুন ক্লাবে তিন বছরের চুক্তি হয়েছে তার।

Advertisement

চলতি সপ্তাহে শুরুতেই চেলসির সঙ্গে চুক্তি শেষ হয় উইলিয়ানের। দেরি না করে তাকে দলে ভেড়ানোর সিদ্ধান্ত সম্পর্কে আর্সেনালের কোচ মাইকেল আর্তেতা বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, সে এমন একজন খেলোয়াড় যে কিনা আমাদের দলে পার্থক্য গড়ে দিতে পারবে।’

উইলিয়ানের বহুমুখী প্রতিভাই এমন সিদ্ধান্তে প্রভাব ফেলেছে উল্লেখ করে গানার কোচ বলেন, ‘আমরা গত কয়েক মাস ধরেই তাকে নজরে রেখেছি। অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার এবং উইঙ্গার পজিশনে আমাদের শক্তি বাড়ানোর চিন্তা ছিল। সে এমন খেলোয়াড় যার মধ্যে আছে বহুমুখিতা। সে তিন থেকে চারটি আলাদা পজিশনে খেলতে পারে।’

আর্সেনালের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর এদু ব্রাজিলের সাবেক ফুটবলার। স্বাভাবিকভাবেই উইলিয়ানকে তিনি বেশ ভালো করেই চেনেন। আর স্বদেশিকে ক্লাবে ভেড়াতে এদুর বড় ভূমিকা ছিল, সেটা না বললেও আন্দাজ করা যায়।

Advertisement

এদু বলেন, ‘আমি তাকে খুব ভালো করে চিনি, অনেক দিন ধরেই। কারণ আমরা ব্রাজিল জাতীয় দলে একসঙ্গে কাজ করেছি। অবশ্যই আমি তার দিকে নজর রেখেছিলাম, কারণ সে অন্য ক্লাবে ছিল। একজন মানুষ কিংবা একজন ফুটবলার হিসেবে তার চরিত্র ও গুণাবলি উল্লেখ করার মতো। আমি শতভাগ নিশ্চিত, ড্রেসিংরুমে সবাই, সমর্থকরা, আমি এবং মাইকেলসহ সবাই উইলিয়ানকে দলে পাওয়া উপভোগ করব।’

২০১৩ সালে রাশিয়ার ক্লাব আনঝি মাখাচকালা থেকে চেলসিতে যোগ দেন উইলিয়ান। সাত বছরে প্রিমিয়ার লিগ ক্লাবটির হয়ে ৩৩৯টি ম্যাচ খেলেছেন। গোল করেছেন ৬৩টি, অ্যাসিস্ট ৫৬।

চেলসিতে অনেক অনেক সুখস্মৃতি ফেলে আসছেন। ব্লুজদের হয়ে দুটি প্রিমিয়ার লিগ, একটি ইউরোপা লিগ, এফএ কাপ এবং লিগ কাপ জিতেছেন উইলিয়ান।

এমএমআর/পিআর

Advertisement