খেলাধুলা

‘মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছে মিয়াঁদাদ’

নিজ দেশের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে সমালোচনার প্রশ্নবাণে বিদ্ধ করেছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান জাভেদ মিয়াঁদাদ। কিন্তু এটি পছন্দ হলো না ভারতের সাবেক ক্রিকেটার মদন লালের। মিয়াঁদাদের মানসিক অবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন মদন লাল।

Advertisement

ইমরান খানের সমালোচনা করে তার প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন মিয়াঁদাদ। বলেছিলেন শিগগিরই রাজনীতিতে যোগ দিয়ে ইমরানের সঙ্গে সামনা-সামনি কথা বলবে। এছাড়াও ইমরান দেশের কথা ভাবে না- এমন অভিযোগও এনেছেন মিয়াঁদাদ। তাই তিনি রাজনীতিতে যোগ দিয়ে দেশের মানুষের উন্নতিতে কাজ করতে চান।

মিয়াঁদাদের এমন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মদন লাল বলেছেন, ‘জাভেদ মিয়াঁদাদ যা বলছে, এর কোনো অর্থই দাঁড়ায় না। এতে আসলে তার শিক্ষার অভাবই ফুঁটে ওঠে। সে এর আগে আমাদের (ভারত) প্রধানমন্ত্রী এবং ভারত নিয়েও এমন মন্তব্য করেছে। আমার মনে হয় মিয়াঁদাদ মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছে।’

গত বুধবার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত একটি ভিডিওতে মিয়াঁদাদ বলেন, ‘পিসিবির বর্তমান কর্মকর্তারা ক্রিকেটের এ বি সিও জানে না। আমি ইমরান খানের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে দুঃখজনক বিষয়ে কথা বলব। আমাদের দেশের জন্য সঠিক নয়, এমন কাউকে আমি ছাড়ব না। আপনি বিদেশ থেকে একজনকে (ওয়াসিম খান) এনেছেন। সে যদি দুর্নীতি করে পালিয়ে যায়, তবে কীভাবে তাকে ধরা হবে? পাকিস্তানের সবাই কি মরে গেছে? যে বাইরে থেকে কাউকে নিয়ে আসতে হবে! আমি চাই, পাকিস্তানের জনগণের উত্থান হোক। যদি দেশে ভালো লোক না-থাকতো, তাহলে বাইরে থেকে কাউকে আনা যেত; কিন্তু এমনটা তো নয়।’

Advertisement

মূলতঃ পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী (সিইও) ওয়াসিম খানকে নিয়েই ক্ষেপেছেন জাভেদ মিয়াঁদাদ। ওয়াসিম খান জন্মেছেন ইংল্যান্ডে। মিয়াঁদাদ আরও উল্লেখ করেন, দেশে বিভাগীয় ক্রিকেট বন্ধের সিদ্ধান্তের ফলে অনেক তরুণ ক্রিকেটার বেকার হয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে যে খেলোয়াড়রা খেলছেন, তাদের ক্রিকেটে ভালো ভবিষ্যত থাকা উচিত। আমি চাই না যে, এই খেলোয়াড়েরা ভবিষ্যতে শ্রমিকের কাজ করুক। বিভাগগুলি বন্ধ করার পরে, অনেক খেলোয়াড় বেকার হয়ে পড়েছে। এখন তারা কর্মসংস্থানের খোঁজ করছে। আমি আগেও এটি বলছিলাম, কিন্তু তারা বুঝতে পারেনি।’

এসএএস/এমএস

Advertisement