জাতীয়

সৌদিতে বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু ১ অক্টোবর : মেলেনি ল্যান্ডিং পারমিশন

১ অক্টোবর থেকে বিমানের বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনা সিদ্ধান্ত প্রদান করেছে সৌদি আরব। আসন বরাদ্দ আরম্ভ করার আগে ল্যান্ডিং পারমিশন আবশ্যক। কিন্তু ল্যান্ডিং পারমিশন পাওয়া যায় নি।

Advertisement

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে এ তথ্য জানিয়েছেন বিমান বাংলাদেশে এয়ারলাইনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোকাব্বির হোসেন।

তিনি বলেন, সৌদি আরব ১ অক্টোবর ২০২০ থেকে বিমানের বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনা সিদ্ধান্ত প্রদান করেছে। আসন বরাদ্দ আরম্ভ করার আগে ল্যান্ডিং পারমিশন আবশ্যক। কিন্তু ল্যান্ডিং পারমিশন পাওয়া যায় নি। ফলে যাত্রীদের আসন বরাদ্দ আরম্ভ করার জন্য ফ্লাইট এখনই ঘোষণা করা সম্ভব হচ্ছে না। ল্যান্ডিং পারমিশন প্রাপ্তির সাথে সাথেই ফ্লাইট ঘোষণা করা হবে এবং যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলে অবহিত করা হবে। ফ্লাইট ঘোষণার পূর্বে কাউন্টারে অহেতুক ভিড় না করার জন্য যাত্রীদের অনুরোধ করা যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, যে সকল যাত্রীর নিকট সৌদি আরব যাওয়ার টিকিট রয়েছে কেবল তাদের আসন বরাদ্দ করা হবে; আপাতত নতুন টিকিট বিক্রি করা হবে না। আসন বরাদ্দের বিস্তারিত তথ্য আগামীকাল (মঙ্গলবার) বিমানের ওয়েব সাইটে পাওয়া যাবে।

Advertisement

এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, সৌদি এয়ারলাইন্সকে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয়েছিল। সেই অনুমতি বাতিল হয়নি। তবে ফ্লাইট পরিচালনা সংক্রান্ত দুটি তথ্য তাদের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে। সেই তথ্য জানতে পারলে ফ্লাইটের বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

এদিকে আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ঢাকা রুটে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয় সৌদিয়াকে। তবে রোববার আন্তঃমন্ত্রণালয়ের এক বৈঠকে সৌদির ফ্লাইট বাতিলের বিষয়ে আলোচনা হয়। ২-১ দিনের মধ্যেই বেবিচক এ বিষয়ে তাদের আপডেট জানাবে।

এআর/এসএইচএস/পিআর

Advertisement