আন্তর্জাতিক

ইরানের বিরুদ্ধে আবারও নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের

ইরানের বিরুদ্ধে আবারও নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইরানকে পরমাণু অস্ত্র তৈরির প্রচেষ্টার জন্য অভিযুক্ত করে এই নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন।

Advertisement

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এক বিবৃতিতে বলেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু কর্মসূচির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ২৭ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে এবারের নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনা হয়েছে। ট্রাম্প দাবি করেন, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র ও পরমাণু কর্মসূচির লাগাম টেনে ধরতে এ নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের মাধ্যমে ইরানের বিরুদ্ধে বিশ্ব সংস্থার সবগুলো নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করতে ব্যর্থ হওয়ার পর এই পদক্ষেপ নিল ওয়াশিংটন; যদিও ট্রাম্প মুখে একথা স্বীকার করেননি।

এদিকে ইরানবিরোধী নাটককে পূর্ণাঙ্গ রূপ দেয়ার জন্য সোমবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও, অর্থমন্ত্রী স্টিফেন মানুচিন ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী মার্ক এসপার এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্পের ঘোষিত নতুন নিষেধাজ্ঞাকে সমর্থন করে বক্তব্য দিয়েছেন। অথচ ট্রাম্পের মতো তারা এ কাজটি একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশের মাধ্যমে করতে পারতেন।

Advertisement

তবে যুক্তরাষ্ট্রের এই নিষেধাজ্ঞার বিরোধিতা করেছে রাশিয়া। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, আমেরিকাকে একথা বুঝতে হবে যে, ইরানের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞাগুলো পুনর্বহালের আর কোনো সুযোগ নেই। তিনি মার্কিন সরকারের ইরানবিরোধী পদক্ষেপের তীব্র সমালোচনাও করেছেন।

আল-অ্যারাবিয়া টিভি চ্যানেলকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ল্যাভরভ বলেন, আমেরিকা ছাড়া আর সব দেশ নিশ্চিতভাবে একথা মনে করে যে, ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের সুযোগ নেই। কাজেই আমেরিকা এ ব্যাপারে যে চেষ্টা চালাচ্ছে তা নিষ্ফল হবে।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বেশিরভাগ দেশের বিরোধিতা সত্ত্বেও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সম্প্রতি দাবি করেন, ইরানের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞাসহ জাতিসংঘের সব নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল হয়ে গেছে।

এর আগে জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের ব্যাপারে তিনি কিছু করতে পারবেন না। ‘ইউরোপীয় ত্রয়ী’ হিসেবে পরিচিত তিন ইউরোপীয় দেশ ব্রিটেন, ফ্রান্স এবং জার্মানিও ইরানের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের মার্কিন প্রচেষ্টার তীব্র বিরোধিতা করেছে। ওই তিন দেশ শুক্রবার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের কাছে লেখা এক যৌথ চিঠিতে তাদের এ বিরোধিতার কথা ঘোষণা করে।

Advertisement

চিঠিতে বলা হয়, জাতিসংঘের ইরানবিরোধী নিষেধাজ্ঞাগুলো আগের মতোই স্থগিত থাকবে এবং তা পুনর্বহাল হবে না। এতে আরোও বলা হয়, নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের যেকোনো প্রচেষ্টা বেআইনি এবং তা কেউ মেনে চলতে বাধ্য থাকবে না। চিঠিতে ‘ইউরোপীয় ত্রয়ী’ ইরানের সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় অটল থাকার সংকল্প ব্যক্ত করে।

এছাড়া জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস নিরাপত্তা পরিষদকে লেখা এক চিঠিতে বলেছেন, ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহালের যে দাবি আমেরিকা জানাচ্ছে সে ব্যাপারে তিনি কোনো পদক্ষেপ নিতে পারবে না।

টিটিএন