জাতীয়

বিমানযাত্রীর কাণ্ড, স্বর্ণবার গলিয়ে ব্যাগে সেলাই

শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে নানা সময় বিভিন্ন উপায়ে স্বর্ণ চোরাচালানের ঘটনা ঘটে। তবে এবার স্বর্ণ পাচারে সম্পূর্ণ এক ভিন্ন কায়দা নিয়েছে পাচারকারীরা। যা এর আগে কখনোই দেখা যায়নি।

Advertisement

২২ সেপ্টেম্বর শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুবাই থেকে আসা বিমান বাংলাদেশ এয়ালাইন্সের বিজি ১৪৮ ফ্লাইটের যাত্রী জাফর আলমের ব্যাগ তল্লাশি করে এই ‘অভিনব’ অপচেষ্টার বিষয়ে জেনেছেন কাস্টমস কর্মকর্তারা।

আটক যাত্রী জাফর আলমের গ্রামের বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে। এ বিষয়ে জানাতে গিয়ে চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার রোকসানা খাতুন বলেন, ‘জাফর আলম নামের এই ব্যক্তি দুইটি স্বর্ণের বার গলিয়ে ব্যাগের ক্যাবলের মতো করে সেলাই করে দিয়েছিলেন। যাতে প্রথম দেখাতেই যে কেউ তারগুলোকে ব্যাগের অংশ মনে করে’।

তিনি বলেন, ‘প্রাথমিক তল্লাশিতে ব্যাগে কিছু পাওয়া না গেলেও খালি ব্যাগটি স্ক্যানিং মেশিনে ঢোকানো হলে ধাতব পদার্থ থাকার সংকেত আসতে থাকে। পরে ব্যাগ কেটে চিকন সুঁতার মতো করে গলানো স্বর্ণ উদ্ধার করা হয়। তার হিসেবে আনা ওই স্বর্ণ বারের ওজন ২৩৪ গ্রাম। এ ঘটনায় জরিমানাসহ শুল্ককর আদায়ের প্রক্রিয়া চলছে’।

Advertisement

এদিন দুবাই থেকে আসা ফ্লাইট এফজেড ৫৮৯ ফ্লাইটের যাত্রী ফটিকছড়ির মো. সাহেদুল আলমের কাছ থেকে ১২৪ কার্টুন, মো. বখতেয়ার উদ্দিনের কাছ থেকে ৯০ কার্টুন, হাটহাজারীর মিয়া আলমের কাছ থেকে ১২০ কার্টুন সিগারেট জব্দ করা হয়েছে বলেও জানান এ কাস্টমস কর্মকর্তা।

এমআরএম