দেশজুড়ে

রাস্তা থেকে তুলে চরে নিয়ে কলেজছাত্রীকে ৫ জনের ধর্ষণ

টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলায় কলেজছাত্রীকে তুলে নিয়ে দলবেঁধে রাতভর ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

Advertisement

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) দুপুরে গুরুতর অবস্থায় কলেজছাত্রীকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হাসপাতালে ভর্তি কলেজছাত্রীর শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে বলে জানান জরুরি বিভাগের চিকিৎসক।

ভুক্তভোগী কলেজছাত্রী জানান, সোমবার (১৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় উপজেলার নুটুরচর এলাকার স্থানীয় বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। মির্জাপুর ইউনিয়নের পূর্বমোহনপুর-নুটুরচর এলাকার সেতুর কাছে পৌঁছালে কাগুজিআটা গ্রামের সাইফুল, এনামুল, খালেদ, জালাল ও আলতাফ তার পথরোধ করেন।

সেই সঙ্গে তার মুখ চেপে ধরে পাশের একটি নৌকায় তুলে চরের মধ্যে পরিত্যক্ত বাড়িতে যান। সেখানে আটকে রেখে রাতভর পালাক্রমে তাকে ধর্ষণ করেন সাইফুল, এনামুল, খালেদ, জালাল ও আলতাফ। ভোরে নদীর পাড়ে কলেজছাত্রীকে ফেলে চলে যান তারা।

Advertisement

অসুস্থ অবস্থায় ওই ছাত্রী বাড়ি ফিরে পরিবারকে বিষয়টি জানান। এরপর স্বজনরা তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন কলেজছাত্রী।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. কামরুজ্জামান বলেন, ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধর্ষণের আগে তাকে মারধর করা হয়েছে।

গোপালপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোশারফ হোসেন বলেন, কলেজছাত্রীকে দলবেঁধে ধর্ষণের ঘটনার অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরিফ উর রহমান টগর/এএম/এমএস

Advertisement