রাজনীতি

সাম্প্রদায়িক শক্তিকে কঠোর হস্তে দমন করতে হবে : শেখ সেলিম

সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে দুর্বলতা নয়, তাদেরকে কঠোর হস্তে দমন করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম।

Advertisement

শুক্রবার (০৪ ডিসেম্বর) বিকেলে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শহীদ শেখ ফজলুল হক মনির ৮১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান আলোচকের বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

শেখ সেলিম বলেন, ‘হেফাজতে ইসলামের দোহাই দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানকে বিভক্ত করার চেষ্টা করতে চান। তারা কখনো বাংলাদেশ চায়নি। তারা পাকিস্তানের হয়ে কাজ করেছিল। ভাস্কর্য শ্রদ্ধা ও স্মরণ করার জন্য। আর মূর্তি-প্রতিমা পূজা করার জন্য। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ভাস্কর্য আছে। সৌদি আরবে আছে, ইরাকে আছে, ইরানে আছে তুরস্কে আছে, মিশরে আছে, ইন্দোনেশিয়া মালয়েশিয়া এমনকি তাদের প্রিয় পাকিস্তানেও ভাস্কর্য আছে। এরা সেই শক্তি যারা মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের সহায়তা করছে। তারা ৩০ লাখ মানুষকে মারতে এবং দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রমহানিতে সহযোগিতা করছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আর কোনো সাম্প্রদায়িক শক্তি যেন বাংলাদেশে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে না পারে এ কথা আমাদের সবসময় মনে রাখতে হবে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে এটাই হোক আমাদের শপথ বা অঙ্গীকার। সাম্প্রদায়িক শক্তি যতই শক্তিশালী হোক না কেন কখনো বাংলাদেশে তাদের রাজনীতি করতে দেয়া যাবে না। আমি সরকারকে বলব, এদের বিরুদ্ধে কোনো দুর্বলতা নয় কঠোর হস্তে দমন করতে হবে।’

Advertisement

যুবলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘তোমরা যারা যুবলীগের করছো তাদের মনে রাখতে হবে, বঙ্গবন্ধু তাগ্যের মনোভাব নিয়ে রাজনীতি করেছেন, ভোগের রাজনীতি করেন নাই। তোমাদেরও ত্যাগের মনোভাব নিয়ে রাজনীতি করতে হবে। বঙ্গবন্ধু যে আদর্শ নিয়ে দেশ স্বাধীন করেছে এবং মনি ভাই যে আদর্শ নিয়ে জীবন দিয়েছে। সে আদর্শ প্রতিষ্ঠা করতে হলে তোমাদেরকে সোনার ছেলে হতে হবে। সন্ত্রাসী হলে চলবে না।’

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ এবং সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল।

এসএস/জেআইএম

Advertisement