ক্যাম্পাস

শেকৃবিতে মানবিক উপায়ে কুকুরের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ কর্মসূচি উদ্বোধন

শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শেকৃবি) বৈজ্ঞানিক ও মানবিক উপায়ে পথ কুকুরের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ ও জলাতঙ্ক প্রতিরোধ কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়েছে।

Advertisement

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় কুকুর নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত কমিটির উদ্যোগে রোববার বেলা সাড়ে ১১টায় ক্যাম্পাসে কুকুর নিয়ন্ত্রণ ও বিনামূল্যে জলাতঙ্কের টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন শেকৃবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া।

কুকুর নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. লাম ইয়া আসাদের সভাপতিত্বে এবং বিশিষ্ট পোষা প্রাণী চিকিৎসক ড. কে বি এম সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্রেজারার অধ্যাপক ড. মো. নজরুল ইসলাম।

ড. শহীদুর রশীদ ভূঁইয়া বলেন, পরিবেশের প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষার্থে পথ কুকুরের ভূমিকা রয়েছে। পথ কুকুর ময়লা, আবর্জনা কিংবা উচ্ছিষ্ট খাওয়া ছাড়াও লোকালয়ে বিপদজনক প্রাণি, অনাকাঙ্ক্ষিত লোকজনের চলাচল রোধে ভূমিকা রাখে।

Advertisement

তিনি আরও বলেন, টিকা দিয়ে বন্ধ্যাকরণের মাধ্যমে মানবিক উপায়ে কুকুরের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা হলে সেটি গ্রহণযোগ্য। হাইকোর্টের রায় আছে কুকুর নিধন বন্ধ করতে। এটা যথাযথ বলে আমি মনে করি।

ট্রেজারার অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, পথ কুকুর বন্ধ্যাকরণের কার্যক্রমের মাধ্যমে ক্যাম্পাস প্রাঙ্গণে কুকুরের সংখ্যা হ্রাস করা যাবে এবং মানুষ কুকুর ঘটিত রোগ-ব্যাধি হতে সহজেই মুক্তি পাবে। শিক্ষার্থীরাও হাতে-কলমে অস্ত্রোপচার শেখার সুযোগ পেল। ভবিষ্যতে এ ধরনের জনকল্যাণমূলক কর্মসূচি গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করেন তিনি।

কমিটির আহ্বায়ক ড. লাম ইয়া আসাদ জানান, ক্যাম্পাসের সব কুকুরকে এই কর্মসূচির আওতায় নিয়ে টিকা প্রদান করা হবে।

ড. সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে ডা. মো. আনোয়ারুল হক এবং ডা. সুজন কুমার সরকার সহযোগে গঠিত একটি বিশেষজ্ঞ টিম পথ কুকুরের বন্ধ্যাকরণ, খোঁজাকরণ ও টিকাদান কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে।

Advertisement

উল্লেখ্য, উদ্বোধনী দিনে ১০টি কুকুরের বন্ধ্যাকরণ, খোঁজাকরণ ও টিকাদান সম্পন্ন হয়।

রাকিব খান/এমএসএইচ/এমএস