দেশজুড়ে

নৌকা পেতে ঢাকায় দৌড়-ঝাঁপ ৯ প্রার্থীর

রাজশাহীর পবার চেয়ারম্যান মো. মনসুর রহমান নভেম্বরের ২২ তারিখে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প বিষয়ক সম্পাদকও ছিলেন। মৃত্যুর পর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন ভাইস চেয়ারম্যান আরজিনা বেগম।

Advertisement

রোববার (২৪ জানুয়ারি) পবা উপজেলা নির্বাচনের বিষয়ে জানতে চাইলে বিষয়টি এই প্রতিবেদককে নির্বাচন কমিশনের জেলা সিনিয়র অফিসার সাইফুল ইসলাম বলেন, ফেব্রুয়ারির তিন তারিখ মনোনয়ন দাখিল ও চার তারিখ মনোনয়ন বাছাই কার্য অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া পবায় উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২৮ ফেব্রুয়ারি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ইতোমধ্যেই আওয়ামী লীগসহ অনেকেই দলীয় মনোনয়ন পাবার আশায় ঢাকায় সিনিয়র নেতাদের নিকট দৌড়-ঝাঁপ শুরু করেছেন। আওয়ামী লীগের ৯ প্রার্থী দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী।

তবে সূত্র আরও জানায়, দলীয় শৃঙ্খলা রক্ষার্থে এবং আওয়ামী লীগের জয় নিশ্চিতে সকলে একমত। এ নিয়ে পবায় বেশ কয়েক দফায় জরুরি সভাও অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Advertisement

তাদের ভাষ্য, ‘দল যাকে মনোনয়ন দিবে তাকেই মেনে নিবেন। কেউ তার বিরোধীতা করবো না, নৌকার ভরাডুবিও হতে দিবো না। আর সে কারণেই মাঠ ছেড়ে সকলেই ঢাকায় গিয়ে ধর্ণা দিচ্ছেন মনোনয়ের আশায়’।

মনোনয়ন প্রত্যাশী ৯ প্রার্থীরা হচ্ছেন- পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন আলী, জেলা কৃষক লীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম বাবু, পবা উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি ও বর্তমান উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান ওয়াজেদ আলী খান, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মাঞ্জাল, পবা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এমদাদুল হক এমদাদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দফতর সম্পাদক ফারুক হোসেন ডাবলু, পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন, কাটাখালী পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জহুরুল আলম রিপন এবং পবার হরিয়ান ইউপি চেয়ারম্যান মো. বজলে রেজবী আল আহসান মুঞ্জিল।

এদিকে বিএনপি থেকে তিনজন প্রার্থিতা করছেন বলে জানা গেছে। তারা হলেন- জেলা যুবদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম সুমন, বিএনপির পবা উপজেলার যুগ্ম আহ্বায়ক কুতুব উদ্দিন বাদশা, জেলা বিএনপির সদস্য আলী হোসেন।

অন্যদিকে ওয়ার্কাস পার্টি থেকে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম তোতা।

Advertisement

এসএমএম/জেআইএম