লাইফস্টাইল

গরমে যেভাবে অ্যাকুরিয়ামের মাছের যত্ন নেবেন

শীত শেষে গরমের আগমনে প্রকৃতি যেন আবার নতুন রূপে সাজছে। গরমে আমরা যেমন কষ্ট পাই; তেমনি সব প্রাণীরাও কাতরায়। অনেকের ঘরেই অ্যাকুরিয়াম থাকে। এতে থাকা মাছগুলোর যদি শীত-গরমে সঠিক পরিচর্যা না করা হয়; তাহলে মরে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

Advertisement

কারণ অ্যাকুরিয়ামের মাছেরা একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রা পর্যন্ত ভালো থাকতে পারে। বেশি তাপমাত্রা সহ্য করতে না পেরে মাছগুলো অসুস্থ হয়ে পরবে এবং মারাও যেতে পারে। বিভিন্ন জাতের মাছ বিভিন্ন তাপমাত্রা পর্যন্ত সহ্য করতে পারে।

গরমে অ্যাকুরিয়ামের পানির তাপমাত্রা স্বাভাবিকভাবেই বেশি হয়ে যায়। তখন কিছু সহজ পদ্ধতি অবলম্বন করলে মাছকে অ্যাকুরিয়ামে বাঁচিয়ে রাখতে পারবেন। জেনে নিন করণীয়-

>> যাদের ঘরে এসি চলে; সে ঘরে অ্যাকুরিয়াম থাকলে পানির তাপমাত্রা হয়তো বাড়বে না। তবে এসি বন্ধ থাকলে পানির তাপমাত্রা বাড়তে থাকবে। তাই পানির তাপমাত্রার বিষয়ে সতর্ক থাকবেন।

Advertisement

>> এসি না থাকলে অ্যাকুরিয়ামের উপরের ঢাকনা খুলে রেখে ঘরে ফ্যান চালিয়ে রাখুন। এতে অ্যাকুরিয়ামের পানির তাপমাত্রা বেশ কিছুটা কম হবে। বর্তমানে অ্যাকুরিয়ামের জন্য বিশেষ ধরনের ফ্যান কিনতে পাওয়া যায়।

>> অ্যাকুরিয়ামের মধ্যে গাছ লাগান। এতে পানির তাপমাত্রা কম থাকবে। অতিরিক্ত তাপমাত্রায় মাছের হজমের সমস্যা হয়। তাই অ্যাকুরিয়ামে গাছ থাকলে মাছ ওই গাছের পাতা খেয়ে হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবে।

>> মাছের হজমে সমস্যা হলে খাবার রুচি থাকে না। তাই এ সময় মাছের খাবার দেওয়ার সময় সতর্ক থাকুন। মাছকে দিনের বেলায় কম খেতে দিন বা না দিলেও চলবে। শুধু রাতে খেতে দিন। কারণ দিনের বেলা থেকে রাতে অ্যাকুরিয়ামে পানির তাপমাত্রা স্বাভাবিকভাবেই কিছুটা কম থাকে।

>> এ সময় অ্যাকুরিয়ামের মাছগুলোকে কম প্রোটিনযুক্ত এবং বেশি ফাইবার আছে, এমন ধরনের খাবার দিন। এতে মাছের খাবার হজম করতে সহজ হবে।

Advertisement

>> পানির তাপমাত্রা যত বেশি থাকবে, তাতে অক্সিজেনের পরিমাণ ততই কম হবে। তাই অ্যাকুরিয়ামের পানিতে এয়ার পাম্পের সাহায্যে বেশি পরিমাণ বাতাস সরবরাহ করুন।

>> এ সময় সপ্তাহে অন্তত ৩০ থেকে ৪০ ভাগ পানি বদল করুন।

>> সপ্তাহে একদিন খাবার দেওয়া বন্ধ রাখুন।

>> অ্যাকুরিয়ামের সামনের কাঁচ কালো কাপড় বা কাগজ দিয়ে আড়াল করে দিন। কারণ ভয় পেলে মাছের স্ট্রোক হতে পারে।

>> অ্যাকুরিয়ামের মাছকে সপ্তাহে একদিন শসা বা তরমুজের ছোট টুকরো দিতে পারেন। যেদিন এ খাবার দেবেন; সেদিন অ্যাকুরিয়ামের মাছকে আর অন্য কোনো খাবার দেবেন না।

অ্যাকুরিয়াম আপডেট/জেএমএস/এমএস