জাতীয়

ফেসবুক লাইভে এসে ‘ষড়যন্ত্র’র অভিযোগ তুললেন হেলেনা জাহাঙ্গীর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক উপ-কমিটি থেকে সদ্য বাদ পড়া হেলেনা জাহাঙ্গীর। এছাড়া সমালোচনাকারীদের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যবস্থা নেবেন বলে এক রকম চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন তিনি।

Advertisement

সোমবার (২৬ জুলাই) রাত ৯টার দিকে নিজ ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে এসে এ অভিযোগ করেন তিনি।

হেলেনা জাহাঙ্গীর বলেন, আমাকে ফেসবুকে গালাগালি করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী দেশের সাইবার অনুযায়ী এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন। প্রধানমন্ত্রী যদি আমাদের মা হয়ে থাকেন, তাহলে তিনি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন। এছাড়া আওয়ামী লীগের জন্য চ্যানেল চালাচ্ছেন বলেও দাবি করেন তিনি।

নিজ আইপি টিভি ‌‘জয়যাত্রা টেলিভিশনে’র উদাহরণ দিয়ে হেলেনা বলেন, আমি সরকারের জন্য চ্যানেল চালাচ্ছি; ভর্তুকি দিয়ে আমার জয়যাত্রা টেলিভিশন চালাচ্ছি। এ টেলিভিশনের জন্য কাজ করতে গিয়ে অন্য কোনো কাজ করতে পারছি না। ছোট হোক কিন্তু চ্যানেল তো, সরকারের জন্য এই চ্যানেল চালাচ্ছি।

Advertisement

লাইভে আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতার নিন্দাও জানান তিনি। এ সময় তিনি আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট এবিএম রিয়াজুল কবীর কাওছারসহ কয়েকজন নেতার নামও উল্লেখ করেন। দলে না থাকলেও দলের জন্য কাজ করে যাবেন বলেও জানান তিনি।

ছোটবেলা থেকেই সমাজসেবা করে আসছেন উল্লেখ করে হেলেনা বলেন, আমি দলে না থাকলেও, এমপি না হলেও দলের জন্য কাজ করে যাব। আমি ৩০ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছি। আমার বয়স বেশি না, বাচ্চাকাল থেকেই সামাজিক কাজ করছি।

‘লকডাউন’ উঠে গেলে সংবাদ সম্মেলন করবেন বলেও জানান হেলেনা জাহাঙ্গীর।

প্রসঙ্গত, ‘আওয়ামী চাকরীজীবী লীগ’ নামক একটি সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগে ভাইরাল হন হেলেনা জাহাঙ্গীর। এরপরেই আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সদস্য পদ থেকে বহিষ্কৃত হন তিনি।

Advertisement

এমআরএম