খেলাধুলা

মেসি-নেইমারকে ছাড়াই জয়ে ফিরল পিএসজি

ইউরোপের তুলনায় ল্যাটিন অঞ্চলে আন্তর্জাতিক বিরতি শেষ হয়েছে একদিন পর। মাত্র ১৮ ঘণ্টা আগেই জাতীয় দলের হয়ে নিজ নিজ দায়িত্ব পালন শেষে লিওনেল মেসি এবং নেইমার গতকাল তাই ক্লাব পিএসজির হয়ে মাঠে নামতে পারেননি।

Advertisement

দলের এই বড় দুই তারকাসহ বেশ কজন ল্যাটিন ফুটবলার মাঠে না থাকলেও জয় তুলে নিয়ে কষ্ট হয়নি পিএসজির। ঘরের মাঠ পার্ক দে প্রিন্সেসে অঁজের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় তুলে নিয়েছে মরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা। দলের জয়ে একটি করে গোল করেছেন দানিলো পেরেইরা এবং কাইলিয়ান এমবাপে।

শুক্রবার দিবাগত রাতে শুরু হওয়া ম্যাচে মাঠে উপস্থিত না থাকলেও, সস্ত্রীক গ্যালারিতে এসেছিলেন মেসি। উপভোগ করেন পিএসজির খেলা। শেষ লিগ ম্যাচে রেঁনের কাছে ফরাসি জায়ান্ট কালও ম্যাচের শুরুতেই পিছিয়ে পড়েছিল। ৩৬ মিনিটে মাঝমাঠে বল নিজের দখলে নিয়েই প্রতি আক্রমণে ওঠে অঁজে। ডান প্রান্ত থেকে সোফিয়ান বাউফলের নিচু ক্রস জোরাল শটে জালে পাঠান অ্যাঞ্জেলো ফুলগিনি।

দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধে মরিয়া পিএসজি বাড়ায় আক্রমণের ধাঁর। তবে মেসি-নেইমার-ডি মারিয়াহীন আক্রমণভাগ কিছুতেই গোলমুখে রাখতে পারছিল না শট। তবে ৬৯ মিনিটে সেই দায়িত্বটা নিজের কাঁধে বুঝে নেন পর্তুগালের রক্ষণাত্মক মিডফিল্ডার পেরেইরা। কর্নার থেকে আসা বল অঁজে সঠিকভাবে ক্লিয়ার করতে না পারলে এমবাপে সহায়তায় পিএসজিকে সমতায় ফেরান পেরেইরা।

Advertisement

এক গোল বানিয়ে দেয়ার পর এমবাপে নিজেও নাম তোলেন স্কোরশিটে। ৮৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে কোচের স্বস্তির, দলের জয়সূচক গোলটি করেন এই ফরাসি তারকা। ম্যাচের ৮৩ মিনিটে মাউরো ইকার্দির হেড গিয়ে লেগেছিল কাছেই দাঁড়িয়ে থাকা পিয়েরিক কাপেলের বাহুতে। প্রথমে রেফারি পেনাল্টির আবেদনে সাড়া না দলেই, ভিডিও অ্যাসিস্টেন্ট রেফারির (ভিএআর) সুবাদে পয়েন্ট হারানোর শঙ্কা থেকে বেঁচে যায় প্যারিসিয়ানরা।

এ জয়ে ১০ ম্যাচে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান অক্ষুণ্ণ রাখল পিএসজি। দুইয়ে থাকা লেঁসের সঙ্গে তাদের পয়েন্ট ব্যবধান এখন ৯, যদিও ক্লাবটি একটি ম্যাচ কম খেলেছে। পিএসজির পরের ম্যাচ আগামী মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে আরবি লাইপজিগের বিপক্ষে। সে ম্যাচ দিয়েই আবার পিএসজির জার্সি গায়ে মাঠে দেখা যাবে মেসি, নেইমার, ডি মারিয়া, মার্কুইনোস, পারেদেসদের।

এসএস/জিকেএস

Advertisement