ক্যাম্পাস

মানবণ্টনে পরিবর্তন, জাবির ভর্তি পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ সূচি প্রকাশ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার পূর্ণাঙ্গ সূচি প্রকাশ হয়েছে। এ পরীক্ষা আগামী ৭ নভেম্বর শুরু হয়ে শেষ হবে ১৮ নভেম্বর।

Advertisement

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইটে এক বিজ্ঞপ্তিতে ভর্তি পরীক্ষার এ সূচি প্রকাশ হয়।

বিজ্ঞপ্তির তথ্যানুযায়ী, এবারের ভর্তি পরীক্ষার সময় ও প্রশ্নের মানবণ্টনে পরিবর্তন এনেছে কর্তৃপক্ষ। মোট ১০০ নম্বরের পরীক্ষায় এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফলের ওপর ২০ নম্বর থাকছে।

এরপর ভর্তিচ্ছুদের ৪৫ মিনিটে ৬০টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। প্রতিটি প্রশ্নের মান ১ ধরে ৬০ নম্বরকে আবার ৮০ নম্বরে রূপান্তর করা হবে। এর আগে ভর্তিচ্ছুরা ৬০ মিনিটে ৮০টি প্রশ্নের উত্তর দিতেন।

Advertisement

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির সদস্যসচিব ও ডেপুটি রেজিস্ট্রার (শিক্ষা) আবু হাসান জাগো নিউজকে বলেন, ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী এবং যারা ভর্তি পরীক্ষা নেবেন, সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি মাথায় রেখে প্রশ্নের এ মানবণ্টন ও সময়সূচি নির্ধারণ হয়েছে। পরীক্ষার সময় প্রতি বেঞ্চে দুজন করে পরীক্ষার্থী বসানো হবে।

ভর্তি পরীক্ষার সূচিতে দেখা গেছে, ৭ ও ৮ নভেম্বর প্রতিদিন পাঁচটি শিফটে ‘এ’ ইউনিটের অধীনে গাণিতিক ও পদার্থবিষয়ক অনুষদ, ৯ ও ১০ নভেম্বর ‘ডি’ ইউনিটের অধীনে জীববিজ্ঞান অনুষদ, ১১ নভেম্বর ‘এইচ’ ইউনিটের অধীনে ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি এবং ‘জি’ ইউনিটের অধীনে ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের ভর্তি পরীক্ষা হবে।

১৪ নভেম্বর ‘বি’ ইউনিটের অধীনে সমাজবিজ্ঞান অনুষদ, ১৫ নভেম্বর ‘এফ’ ইউনিটের অধীনে আইন অনুষদ এবং ‘আই’ ইউনিটের অধীনে বঙ্গবন্ধু তুলনামূলক সাহিত্য ও সংস্কৃতি ইনস্টিটিউট, ১৬ নভেম্বর ‘ই’ ইউনিটের অধীনে বিজনেস স্টাডিজ অনুষদ, ‘সি-১’ ইউনিটের অধীনে কলা ও মানবিকী অনুষদ (নাটক ও নাট্যতত্ত্ব এবং চারুকলা বিভাগ) এবং ১৮ নভেম্বর ‘সি’ ইউনিটের অধীনে কলা ও মানবিক অনুষদের ভর্তি পরীক্ষা হবে।

প্রতিদিন প্রথম শিফটের পরীক্ষা সকাল ৯টা থেকে পৌনে ১০টা, দ্বিতীয় শিফট সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সোয়া ১১টা, তৃতীয় শিফট দুপুর ১২টা থেকে পৌনে ১টা, চতুর্থ শিফট দুপুর পৌনে ২টা থেকে আড়াইটা এবং পঞ্চম শিফটের পরীক্ষা বিকেল সোয়া ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত হবে।

Advertisement

এ বছর ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের মোট নয়টি ইউনিটের জন্য পৃথকভাবে ফরম পূরণ করতে হয়েছে। এর মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ৬৮ হাজার ২০২ জন, ‘বি’ ইউনিটে ৩৭ হাজার ৮৪৭ জন, ‘সি’ ইউনিটে ৪১ হাজার ৬৭৭ জন, ‘সি-১’ ইউনিটে ১০ হাজার ২৬৮ জন ভর্তিচ্ছু পরীক্ষায় অংশ নিতে আবেদন ফরম পূরণের প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেছেন।

এছাড়া ‘ডি’ ইউনিটে ৬৯ হাজার ১২৯ জন, ‘ই’ ইউনিটে ১৮ হাজার ৩৩ জন, ‘এফ’ ইউনিটে ২৪ হাজার ৭৩ জন, ‘জি’ ইউনিটে ৮ হাজার ৮৬১ জন, ‘এইচ’ ইউনিটে ২৩ হাজার ২৪০ জন এবং ‘আই’ ইউনিটে ৬ হাজার ৭১০ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন।

ফারুক হোসেন/এমকেআর