প্রবাস

‘নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলা’ শুরু হচ্ছে ২৮ অক্টোবর

মুক্তধারা ফাউন্ডেশন আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী ৩০তম নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলা শুরু হচ্ছে বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর)। মেলা চলবে ১ নভেম্বর পর্যন্ত। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ২৮ অক্টোবর, লাগর্ডিয়া ম্যারিয়ট হোটেলে। শুরু হবে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায়।

Advertisement

অন্যান্য দিন মেলা বসবে জ্যাকসন হাইটসের জুইশ সেন্টারে। প্রতিদিন শুরু হবে বিকেল চারটায় এবং শেষ হবে রাত দশটায়। এবারে বইমেলার উদ্বোধন করবেন কবি আসাদ চৌধুরী। তার ধারণ করা বক্তব্যের মধ্য দিয়ে ছয় দিনব্যাপী নিউইয়র্ক বইমেলার উদ্বোধন হবে বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।

বইমেলা উপলক্ষে বুধবার (২৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিয়েছেন আয়োজকরা। নগরের কুইন্স প্যালেসে আয়োজিত মিট দ্য প্রেস পরিচালনা করেন লেখক, সাংবাদিক হাসান ফেরদৌস। ৩০তম বইমেলার আয়োজন ও প্রস্তুতি নিয়ে কথা বলেছেন নূরুন নবী, ফেরদৌস সাজেদীন, মনিরুল হক, হারুন হাবীব, জাফর আহমেদ রাশেদ, হুমায়ুন কবির ঢালী, সাইফুর রহমান চৌধুরী, গোলাম ফারুক ভুঁইয়া, মুক্তধারার কর্ণধার বিশ্বজিত সাহা প্রমুখ।

বইমেলা উপলক্ষে ঢাকা থেকে প্রকাশকরা এরই মধ্যে নিউইয়র্কে এসে পৌঁছেছেন। মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানে তারা বলেছেন, দেশের বাইরে নিউইয়র্ক বইমেলা নানা কারণে বৈশিষ্ট্যময় হয়ে ওঠেছে। এ মেলায় তাদের যোগদান প্রবাসে বাংলা ভাষা লালন করা জনসমাজের সঙ্গে সংযোগ সৃষ্টির গুরুত্বপূর্ণ কাজ করছে বলে তারা উল্লেখ করেন।

Advertisement

মুক্তধারার বিশ্বজিত সাহা তার বক্তব্যে মহামারিতে হারিয়ে যাওয়া প্রকাশকদের কথা স্মরণ করে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তিনি বলেন, ১৯৯২ সালে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের সামনের আয়োজনটি আজকে ত্রিশ বছরের বিস্তৃতি তাকে আপ্লুত করে থাকে। বিশ্বজিত সাহা বইমেলাকে সার্বক্ষণিক সাহায্য সহযোগিতা দিয়ে যারা এ পর্যায়ে নিয়ে এসেছেন, তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরদিন শুক্রবার থেকে সোমবার পর্যন্ত বইমেলার কার্যক্রম চলবে জ্যাকসন হাইটসের জুইস সেন্টারে। ৩০ অক্টোবর জুইশ সেন্টারের সামনের সড়কে মঞ্চ স্থাপন করে উদযাপন করা হবে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর ও নিউইয়র্ক বাংলা বইমেলার ৩০ বছর পূর্তির বিশেষ অনুষ্ঠান।

বইমেলায় বাংলাদেশ থেকে তাদের চলতি বছরের নতুন বই নিয়ে মেলায় অংশ নিচ্ছেন দেশের প্রকাশনা সংস্থা বাংলা একাডেমি, অনন্যা, কথাপ্রকাশ, প্রথমা প্রকাশন, অঙ্কুর প্রকাশনী, সন্দেশ প্রকাশনা, আকাশ প্রকাশন, অন্বয় প্রকাশ, বাতিঘর, কবিতা চর্চা ও আমেরিকা থেকে মুক্তধারা নিউইয়র্ক এবং ঘুংঘুর।

বাংলাদেশ জ্ঞান ও সৃজনশীল প্রকাশনা সংস্থার নির্বাহী মনিরুল হক এবং বাংলাদেশ পুস্তক প্রকাশক ও বিক্রেতা সমিতির প্রাক্তন সভাপতি আলমগীর শিকদার লোটনও বইমেলায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে যোগ দিচ্ছেন। এছাড়া সংগীত পরিবেশনের জন্য ঢাকা থেকে নিউইয়র্ক এসে পৌঁছেছেন বিশিষ্ট সংগীত শিল্পী নবনীতা চৌধুরী।

Advertisement

বইমেলাজুড়ে থাকছে নানা বিষয়ে আলোচনা, স্মৃতিচারণ, আবৃত্তি, কবিতা পাঠ, লেখক আড্ডাসহ সঙ্গীতানুষ্ঠান। উত্তর আমেরিকায় অবস্থানরত লেখকদের ব্যাপক সমাবেশ ঘটছে নিউইয়র্ক বইমেলায়। অনেকেই এরই মধ্যে নিউইয়র্কে এসে পৌঁছেছেন। লেখক প্রকাশকদের আড্ডায় নগরের জ্যাকসন হাইটস এলাকা সরগরম থাকছে মধ্যরাত পর্যন্ত।

এমআরএম