জাতীয়

সারাদেশে একদিনে ৫৭ লাখ টিকাদান

করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে গণটিকাদান কর্মসূচির দ্বিতীয় ধাপে বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) রাজধানীসহ সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বমোট (গণ ও নিয়মিত মিলিয়ে) টিকা নিয়েছেন ৫৬ লাখ ৯১ হাজার ৮২৮ জন। তাদের মধ্যে প্রথম ডোজ নিয়েছেন ২ লাখ ৪৭ হাজার ২৬২ জন ও দ্বিতীয় ডোজ ৫৪ লাখ ৪৪ হাজার ১৬৬ জন।

Advertisement

এ নিয়ে দেশে মোট টিকা নেওয়ার সংখ্যা দাঁড়ালো ৬ কোটি ৮২ লাখ ৯২ হাজার ৯২৭ জনে। তাদের মধ্যে প্রথম ডোজের টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যা ৪ কোটি ১৫ লাখ ১৬ হাজার ৪৭২ জন ও দ্বিতীয় ডোজের ২ কোটি ৬৭ লাখ ৭৬ হাজার ৪৫৫ জন।

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (এমআইএস ও লাইন ডিরেক্টর এইচআইএস অ্যান্ড ই-হেলথ) অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির পরিসংখ্যানে এ তথ্য জানা গেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় প্রথম ডোজের টিকা নেওয়া ২ লাখ ৪৭ হাজার ২৬২ জনের মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ২১ হাজার ৯৬২ জন ও নারী ১ লাখ ২৫ হাজার ৭০০ জন। দ্বিতীয় ডোজের টিকা গ্রহণকারী ৫৪ লাখ ৪৪ হাজার ১৬৬ জনের মধ্যে পুরুষ ২৬ লাখ ৬১৪ জন ও নারী ২৮ লাখ ৪৩ হাজার ৫৫২ জন।

Advertisement

চলতি বছরের ২৭ জানুয়ারি দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট উৎপাদিত অক্সফোর্ডের অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার মাধ্যমে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) পর্যন্ত মোট নিবন্ধনকারীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৫ কোটি ৭৮ লাখ ৯৩ হাজার ১৮৭ জন। তাদের মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে ৫ কোটি ৭০ লাখ ৫৪ হাজার ৫৭৪ জন ও পাসপোর্টের মাধ্যমে ৮ লাখ ৩৮ হাজার ৬১৩ জন নিবন্ধন করেন।

দেশে বর্তমানে অ্যাস্ট্রাজেনেকা, ফাইজার, সিনোফার্ম ও মর্ডানাসহ মোট চার ধরনের টিকাদান কার্যক্রম চলছে। ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত অ্যাস্ট্রাজেনেকার ১ কোটি ৩৯ লাখ ১২ হাজার ৫৪১ ডোজ, ফাইজারের ৭ লাখ ৩৪ হাজার ৮৫৯ ডোজ, সিনোফার্মের ৪ কোটি ৮৪ লাখ ২৭ হাজার ৮৫০ ডোজ এবং মডার্নার ৫২ লাখ ১৭ হাজার ৬৭৭ ডোজ টিকা দেওয়া হয়।

এমইউ/এমআরএম

Advertisement