খেলাধুলা

টি-টোয়েন্টির মতো টেস্টেও নতুন শুরু বাংলাদেশের!

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলে যায় অনেক কিছুই। বাংলাদেশ ক্রিকেটেও সেই বদলে যাওয়ার সুর। এক সময় যারা ছিলেন বাংলাদেশ দলে নিয়মিত মুখ, যাদের ছাড়া বাংলাদেশ দল কল্পনাই করা যেত না, সেই সাকিব-তামিম দলে নেই। ইনজুরির কারণে দুজনই বাইরে। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ নিয়েছেন অবসর। কেবল সেই প্রজন্মের মুশফিকুর রহিমই রয়েছেন দলে।

Advertisement

সুতরাং টেস্টে বাংলাদেশ দলটাকে নতুন বললে অত্যুক্তি হবে না মোটেও। সৌম্য নেই, লিটন নেই, নেই মিঠুনও। এমনকি বোলিংয়ে পেসার তাসকিনও নেই। নতুন দল নয় তো কী? মুমিনুল হকের নেতৃত্বে সেই নতুন দলটিই এবার মুখোমুখি শক্তিশালী পাকিস্তানের। আর কিছুক্ষণ পরই অনুষ্ঠিত হবে টস।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চরম ভরাডুবির পর বাংলাদেশ পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজে গঠন করেছে প্রায় নতুন একটি দল। পুরোনো অনেককেই বাদ দিয়ে নতুনদের প্রাধান্য দিয়েছে। টেস্ট সিরিজে নানা ঘটনাচক্রে নতুনদের ওপরই ভরসা করতে হচ্ছে।

সে ধারাবাহিকতায় আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে অভিষেক হয়ে যেতে পারে দুজনের। ইয়াসির আলী রাব্বি ও মাহমুদুল হাসান জয়ের। ওপেনিংয়ে সাদমান ইসলামের সঙ্গে দেখা যেতে পারে জয়কে।

Advertisement

মুমিনুল তিনে, মুশফিক চারে। আপাতত বাংলাদেশ ব্যাটিংয়ের টপঅর্ডার এভাবেই হয়তো সাজানো হবে। যদিও ওপেনিংয়ে মাঠে নামতে প্রস্তুত আছেন সাইফ সাহানও। যদিও সাইফের সাম্প্রতিক ফর্ম তাকে একাদশে জায়গা দেবে কি না সন্দেহ।

পাকিস্তান যখন তাদের পুরো শক্তির দল নিয়ে মাঠে নামার অপেক্ষায়, তখন বাংলাদেশ প্রস্তুতি নিয়েছে মোটামুটি ভাঙাচোরা একটি দল নিয়ে। পাকিস্তান যখন একদিন আগে ১২ জনের দল ঘোষণা করে দেয়, তখন বাংলাদেশ একদিন আগে আগের ১৬ জনের সঙ্গে আরও দুই পেসার অন্তর্ভূক্ত করে। আপাতত দেখার বিষয়, মুমিনুল হক এই দল নিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে কতদূর যেতে পারেন।

আইএইচএস/

Advertisement