আন্তর্জাতিক

নাগাল্যান্ডে ‘ভুল’ অভিযানে ১৫ জন নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা

ভারতীয় আধা সামরিক বাহিনী আসাম রাইফেলসের ‘ভুল’ অভিযানে এক সেনা সদস্যসহ ১৫ জন নিরীহ গ্রামবাসী নিহতের ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে। নাগাল্যান্ডের রাজধানী কোহিমা থেকে সাড়ে ৩০০ কিলোমিটার উত্তরে অরুণাচল প্রদেশ ও মিয়ানমার সীমান্তবর্তী মোন জেলায় শনিবার (৫ ডিসেম্বর) এ সহিংসতার ঘটনা ঘটে।

Advertisement

নাগাল্যান্ড রাজ্য সরকার এ ঘটনায় পুলিশ বাহিনী থেকে পাঁচ সদস্য বিশিষ্ট একটি বিশেষ তদন্ত টিম (এসআইটি) গঠন করেছে। হত্যা মামলা দায়ের করার পর এটি পুলিশ স্টেশনের অপরাধ বিভাগে পাঠানো হয়েছে।

রাজ্য সরকার সূত্রে জানা গেছে, এ ঘটনার পর বাতিল করা হয়েছে প্রতি বছর ডিসেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে আয়োজন করা নাগাল্যাণ্ডের সবচেয়ে বড় হর্নবিল উত্সব।

সাধারণ মানুষের প্রাণহানির ঘটনায় সেখানে এখনও উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিরাপত্তা বাহিনীর টহল জোরদার করা হয়েছে। গুজব ছড়ানো এড়াতে মোন জেলায় মোবাইল ইন্টারনেট ও এসএমএস সেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

নাগাল্যান্ডের মুখ্যমন্ত্রী নেইফিউ রিও এক টুইট বার্তায় এ ঘটনা উল্লেখ করে দুঃখপ্রকাশ করেন ঘটনার পরপরই। একে ‘দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা’ বলে উল্লেখ করে নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তিনি।

এ ঘটনায় ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও শোক প্রকাশ করে টুইট করেন। ঘটনা তদন্তে একটি বিশেষ তদন্তকারী টিম গঠন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, আসাম রাইফেলসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতি জারি করে এ ঘটনার জন্য বাহিনী ‘গভীর অনুতপ্ত’ বলে জানানো হয়েছে। এতে আরও বলা হয়েছে, এই ঘটনার উচ্চপর্যায়ের তদন্ত হবে। দোষীদের আইন অনুযায়ী শাস্তি দেওয়া হবে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, একটি পিক-আপ ভ্যানে করে তিরু-ওটিং গ্রামে ফিরছিলেন গ্রামবাসীরা। সে সময় তাদের সন্ত্রাসী ভেবে গুলি চালায় নিরাপত্তা বাহিনী। এরপরেই বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়িগুলো ঘিরে ফেলে। পুলিশ জানিয়েছে, সে সময় পুলিশ আত্মরক্ষায় গুলি চালালে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

Advertisement

সূত্র: এনডিটিভি, আনন্দবাজার

এসএনআর/জিকেএস