দেশজুড়ে

‘জাওয়াদ’র প্রভাবে মোংলায় ২৭৪ একর ধান, ১৮ বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত

ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাবে টানা কয়েকদিনের বৃষ্টিতে মোংলায় কাঁচা বসতঘর ও ধানের বেশ ক্ষতি হয়েছে।

Advertisement

মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার ক্ষতির পরিসংখ্যান দিয়ে জানান, কয়েকদিনের বৃষ্টিতে উপজেলার চিলা, বুড়িরডাঙ্গা, সুন্দরবন ও মিঠাখালী ইউনিয়নের বিভিন্ন জায়গায় মাঠের পাকা ও আধা পাকা ধানের বেশ ক্ষতি হয়েছে। এ চারটি ইউনিয়নের প্রায় ২৭৪ একর জমির ধান নষ্ট হয়েছে। এছাড়া বৃষ্টিতে ও বৃষ্টির পানি জমে ১৮টি কাঁচা বসতঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে উপজেলার ৮৯০ জন মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন।

বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) বাগেরহাট জেলার আহ্বায়ক নুর আলম শেখ বলেন, এমনিতেই লবণাক্ততার কারণে এ এলাকায় তেমন ধান হয় না। তারপরও কৃষকরা নিজের জমি বা বর্গা নেওয়া জমিতে শ্রম, অর্থ ব্যয় ও পরিচর্যা করে যে ফসল ফলিয়েছেন তাও জাওয়াদের প্রভাবে নষ্ট হয়ে গেছে। এখন পাকা ধান ঘরে তোলার সময়। এ সময় এসে এমন ক্ষতি কৃষকদের বড় ধরনের ক্ষতি ও দুর্ভোগে ফেলেছে।

তারা যাতে সরকারের সাহায্য সহযোগিতা পান সে বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনের কাছে দাবি জানান তিনি।

Advertisement

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার বলেন, ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠানো হয়েছে। কোনো ধরনের বরাদ্দ পেলে অবশ্যই তা ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে বণ্টন করে দেওয়া হবে।

মো. এরশাদ হোসেন রনি/এমএইচআর