খেলাধুলা

কক্সবাজারে তিন বছর পর জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল

ফের মাঠে গড়াচ্ছে করোনা মহামারি ও মাঠ সংস্কারের কারণে ২০১৯ সাল হতে বন্ধ থাকা কক্সবাজার জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। সোমবার (৩০ মে) জেলা ক্রীড়া সংস্থা আয়োজিত টুর্নামেন্টটি উদ্বোধন হবে। জেলার আট উপজেলা দলের অংশগ্রহণে হবে এই ফুটবল লড়াই।

Advertisement

কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে বেলা আড়াইটায় উদ্বোধনী ম্যাচে শক্তিশালী পেকুয়া উপজেলা ফুটবল দলের মুখোমুখি হবে স্বাগতিক কক্সবাজার সদর উপজেলা ফুটবল দল। প্রথম দিন দুদলের হয়ে জেলার ফুটবলারের সাথে মাঠ মাতাবেন নাইজেরিয়ানসহ বিদেশি একাধিক খেলোয়াড়।

চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো. আশরাফ উদ্দিন প্রধান অতিথি হয়ে খেলার উদ্বোধন করবেন। শনিবার সন্ধ্যায় জেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটি সম্পাদক এ.কে.এম.রাশেদ হোসাইন।

এ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলো হলো- রামু, চকরিয়া, মহেশখালী, টেকনাফ, পেকুয়া, কুতুবদিয়া, উখিয়া ও স্বাগতিক কক্সবাজার সদর উপজেলা ফুটবল দল। আটটি দলকে দুই গ্রুপে ভাগ করে নক-আউট পদ্ধতিতে এই টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে।

Advertisement

ম্যাচগুলো উপভোগ্য করে ক্রীড়ামোদীদের আনন্দ দিতে প্রত্যেক দলে কোটায় চারজন করে বিদেশি ফুটবলার খেলানোর সুযোগ থাকছে। প্রত্যেক উপজেলা দল অংশগ্রহণ ফি ছাড়াও চ্যাম্পিয়ন দল ট্রফির সঙ্গে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও রানার্স আপ দল ট্রফির সঙ্গে নগদ ৩০ হাজার টাকা প্রাইজমানি পাবে।

গ্যালারিতে বসে প্রায় ১০ হাজার ক্রীড়াপ্রেমী খেলা উপভোগ করতে পারবেন। টুর্নামেন্টের খেলা দেখতে মাত্র ৩০ টাকায় টিকেট স্টেডিয়ামে ঢুকতে পারবেন ফুটবলপ্রেমীরা। তবে সেমিফাইনাল ও ফাইনাল খেলা দেখতে টিকেটের মূল্য রাখা হয়েছে জনপ্রতি ৫০ টাকা।

টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটি সভাপতি ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জাহিদ ইকবালের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার এডভোকেট জসীম উদ্দিন, টুর্নামেন্টের স্পন্সর বসুন্ধরা গ্রুপের প্রতিনিধি সাংবাদিক তোফায়েল আহমদ।

এতে উপস্থিত ছিলেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আবছার উদ্দিন, সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ জসিম উদ্দিন, সহ-সভাপতি অনুপ বড়ুয়া অপু, যুগ্ন-সম্পাদক হেলাল উদ্দিন কবির, নির্বাহী সদস্য প্রভাষক জসিম উদ্দিন, এম জাহেদ উল্লাহ, ওমর ফারুক ফরহাদ, এম.আর মাহবুব, পরেশ কান্তি দে, রতন দাশ, আলী রেজা তসলীম ও নাছির উদ্দিন প্রমূখ।

Advertisement

সায়ীদ আলমগীর/এসএএস/এমএস