জাতীয়

র‌্যাবের নতুন ডিজির শুরু থেকে বর্তমান

এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) নবম মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন অতিরিক্ত আইজিপি এম খুরশীদ হোসেন। চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনের পদোন্নতি ও বাংলাদেশ পুলিশের আইজিপি হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হওয়ায় তিনি র‌্যাবের মহাপরিচালক পদে স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন।

Advertisement

এম খুরশীদ হোসেন সাফল্যের সঙ্গে পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের ক্রাইম আ্যন্ড অপারেশনস্ হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে র‌্যাব ফোর্সেসে যোগ দেন।

র‌্যাবের দায়িত্ব নেওয়ার পর এম খুরশীদ হোসেন শনিবার (১ অক্টোবর) সকালে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন। পরে তিনি বনানী কবরস্থান ও রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করেন।

বিসিএস ১২তম ব্যাচের কর্মকর্তা অতিরিক্ত আইজিপি এম খুরশীদ হোসেন ১৯৯১ সালে সহকারী পুলিশ সুপার হিসেবে যোগ দেন। তিনি সহকারী পুলিশ সুপার থাকাকালীন নারায়ণগঞ্জ, রাঙ্গামাটি, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার থাকাকালীন কুমিল্লা, পাবনা ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে দায়িত্ব পালন করেন।

Advertisement

তিনি পাবনা, মাদারীপুর, চুয়াডাঙ্গা ও মৌলভীবাজার জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে কৃতিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। ওই অঞ্চলগুলোতে জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও চরমপন্থিসহ অন্যান্য অপরাধ দমনে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন। অতিরিক্ত ডিআইজি পদে থাকাকালীন পুলিশ সদর দপ্তর ও রাজশাহী রেঞ্জে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে দায়িত্ব পালন করেছেন।

নতুন র‌্যাব ডিজি রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি হিসেবে দায়িত্ব পালনকালীন চরমপন্থী দমন, জঙ্গিবাদ মোকাবিলা ও অন্যান্য অপরাধ দমনেও কৃতিত্ব ও সাফল্যের স্বাক্ষর রেখেছেন। এছাড়াও তিনি ডিআইজি হিসেবে পুলিশ সদর দপ্তরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে পদায়িত ছিলেন। ২০২১ সালের ১৭ মে অতিরিক্ত আইজিপি পদে পদোন্নতি পান। পদোন্নতি পেয়ে র‌্যাবে যোগ দেওয়ার আগ পর্যন্ত অত্যন্ত সুনাম ও সাফল্যের সঙ্গে অতিরিক্ত আইজিপি (ক্রাইম আ্যন্ড অপারেশনস্) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এম খুরশীদ হোসেন বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি থেকে মৌলিক প্রশিক্ষণ, বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (বিপিএটিসি) থেকে বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ ও বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি থেকে মৌলিক সামরিক প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন তদন্ত, ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট, তথ্যপ্রযুক্তি ও অন্যান্য বিষয়ে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেন।

তিনি যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জাপান, চীন, মালয়েশিয়া, কলম্বিয়া থেকে সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট কোর্স, স্ট্যাডি ভিজিট অন প্রিজনার্স, সিকিউরিটি ও পেট্রোলিং আ্যন্ড মনিটরিংসহ বিভিন্ন বিষয়ে উচ্চতর প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেন। তিনি কসোভোতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে কন্টিনজেন্ট কমান্ডার হিসেবে নিয়োজিত থেকে বিশ্ব শান্তি রক্ষায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন।

Advertisement

এছাড়াও খুরশীদ হোসেন আমেরিকা, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, জার্মানি, চীন, ইতালি, সিঙ্গাপুর, সুইজারল্যান্ড, জাপান ও ব্রাজিলসহ বিভিন্ন দেশে সরকারি কর্তব্যে গমন করেছেন।

নতুন র‌্যাব ডিজি এম খুরশীদ হোসেন ১৯৬৪ সালে গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানীতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ব্যক্তিগত জীবনে দুই পুত্র সন্তানের জনক। তার বড় ছেলে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে ক্যাপ্টেন হিসেবে কর্মরত আছেন। তার কনিষ্ঠ ছেলে কম্পিউটার সায়েন্স বিষয়ে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।

এম খুরশীদ হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। তিনি কর্মক্ষেত্রে অত্যন্ত সততা, সাহসিকতা, দক্ষতা, পেশাদারিত্ব ও বিচক্ষণতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে সুনাম অর্জন করে আসছেন। চাকরি ক্ষেত্রে পারদর্শিতা ও উৎকর্ষতার জন্য পুলিশের সর্বোচ্চ পদক বিপিএম ও পিপিএম পান।

টিটি/জেএস/এএসএম