জাতীয়

ফেসবুক পেজ বিক্রির কথা বলে ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন মোবারক

ফেসবুক পেজ বিক্রির কথা বলে প্রতারণার মাধ্যমে ১০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে। এ অভিযোগে রাজধানীর ধানমন্ডি থেকে মোবারক হোসেন (২২) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

Advertisement

র‍্যাব জানায়, এক ব্যক্তির কাছে একটি ফেসবুক পেজ বিক্রি করেন মোবারক। পরে মোবারক নিজেই পেজটি হ্যাক করেন। এরপর থেকে বিভিন্ন কৌশলে হত্যা মামলাসহ বিভিন্ন মামলার ভয় দেখিয়ে নগদ ও বিকাশের মাধ্যমে ১০ লাখ ৬৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন মোবারক হোসেন।

শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে র‍্যাব-২ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. ফজলুল হক জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ২০২১ সালের অক্টোবরে মোবারক হোসেনের থেকে ফেসবুক পেজ কেনেন ভুক্তভোগীর ছেলে। এরপর গত ৭-৮ মাস আগে ওই পেজটি হ্যাক হয়ে যায়। পেজটি হ্যাক হওয়ার পর থেকে ভুক্তভোগী ছেলের কাছ থেকে মামলার ভয় দেখিয়ে বিভিন্ন সময় নগদ ও বিকাশের মাধ্যমে মোট ১০ লাখ ৬৯ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন গ্রেফতার মোবারক।

Advertisement

এ অভিযোগের পর গোয়েন্দা কার্যক্রম বৃদ্ধি করে র‍্যাব-২। এরই ধারাবাহিকতায়, র‍্যাবের একটি দল ধানমন্ডি এলাকায় অভিযান চালিয়ে মোবারক হোসেনকে গ্রেফতার করে। তাকে যখন গ্রেফতার করা হয়, তখনও তিনি পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা নিচ্ছিলেন।

র‍্যাবের প্রাথমিক অনুসন্ধান ও জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, মোবারক দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষের কাছে ভুয়া ফেসবুক পেজ বেচাকেনা করে বিপুল অর্থ আত্মসাৎ করেছেন।   

এএসপি মো. ফজলুল হক আরও জানান, মোবারক হোসেন একজন হাইস্কুল পড়ুয়া ছাত্র হয়েও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও ইউটিউব দেখে প্রতারণার কৌশল আয়ত্ত করেন। পরবর্তীতে তিনি ৪-৫ জনের একটি প্রতারক চক্র গড়ে তোলেন। যাদের কাজ তরুণদের ফেসবুক পেজের মাধ্যমে লোভনীয় অফার দিয়ে আকৃষ্ট করা।

এরপর নতুন ফেসবুক পরিচালনাকারীদের কাছে চুক্তির মাধ্যমে পেজ বিক্রি করা হয়। পেজ বিক্রির পর পাসওয়ার্ড হ্যাক করে আবার তা নিজেদের দখলে নেন মোবারক।

Advertisement

গ্রেফতার আসামির দেওয়া তথ্য যাচাই-বাছাইয়ের ভিত্তিতে চক্রের সঙ্গে জড়িত অন্যান্য সদস্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানান র‍্যাবের এই কর্মকর্তা।

টিটি/জেডএইচ/জিকেএস