ভ্রমণ

ঘুরে আসুন মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত সাত শহীদের মাজারে

পাহাড়ি জলপ্রপাত, চীনা মাটির পাহাড়, নদী, খাল, বিল আর হাওড় নিয়ে নেত্রকোনা জেলা। সেখানে আছে অনেক দর্শনীয় স্থান। নেত্রকোনা একটি পর্যটনসমৃদ্ধ জেলা।

Advertisement

সারা বছরের তুলনায় শীতে ভ্রমণপিপাসুদের বেশি আগমন ঘটে এ জেলায়। অবসরে আপনিও চাইলে ঘুরে আসতে পারেন নেত্রকোনা জেলার সেরা দর্শনীয় স্থানে। নেত্রকোনার দর্শনীয় স্থানের মধ্যে অন্যতম একটি হলো সাত শহীদের মাজার।

সাত শহীদের মাজার বা সপ্তশিখা নেত্রকোনার সীমান্তবর্তী উপজেলা কলমাকান্দার লেঙ্গুরা ইউনিয়নের ফুলবাড়ির বাংলাদেশ-ভারতের নো ম্যান জোনে অবস্থিত।

প্রকাণ্ড মেহগনি গাছের বাগানের ছায়ায় আচ্ছাদিত মাজারটি। এখানে সমাধিত ও দাহ করা হয়েছে মুক্তিযুদ্ধে পাক বাহিনীর সঙ্গে সম্মুখযুদ্ধে শহীদ হওয়া সাত মুক্তিযোদ্ধাদের।

Advertisement

তারা হলেন ডা. আব্দুল আজিজ, মো: ফজলুল হক, মো: ইয়ার মাহমুদ, ভবতোষ চন্দ্র দাস, মো: নূরুজ্জামান, দ্বিজেন্দ্র চন্দ্র বিশ্বাস, মো: জামাল উদ্দিন।

এ মাজারের পাশ দিয়েই বয়ে গেছে ভারতের মেঘলয়ের পাহাড় থেকে নেমে আসা গনেস্বরী নদী। সেখান থেকেই দেখা মিলবে ভারতের পাহাড়গুলোর।

আমাদের দেশের সীমানার ভেতরেও আছে উঁচু উঁচু টিলা। আর সেই টিলাগুলোর পাদদেশেই বাস করেন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী হাজং সম্প্রদায়।

পাহাড়, টিলা, নদীর অপরুপ সৌন্দর্য্য ও শালবনের নিরবতা উপভোগ করার পাশাপাশি আরও দেখতে ও জানতে পারবেন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের জীবনাভাষ।

Advertisement

ঢাকা থেকে যেভাবে যাবেন

মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে বিআরটিসি, এনা ও হযরত শাহজালাল বাস কোম্পানির বাসগুলো প্রায় সারাদিনই নেত্রকোনায় চলাচল করে। বাসের টিকেট মূল্য ২৫০ টাকা।

এছাড়া ট্রেনে করে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন অথবা বিমানবন্দর স্টেশন থেকে মোহনগঞ্জ এক্সপ্রেস ও হাওর এক্সপ্রেসে নেত্রকোনা যাওয়া যায়। শোভন চেয়ারের টিকেটমূল্য ১৯৫ টাকা ও এসি ৩৭৪ টাকা।

এরপর নেত্রকোনা সদরের রাজুর বাজার থেকে ৩০০ টাকা ভাড়া দিয়ে মোটরসাইকেলে সরাসরি যাওয়া যায় সাত শহীদের মাজারে। মোটরসাইকলেই এখানে যাওয়ার সবচেয়ে ভালো বাহন।

নেত্রকোনায় কোথায় থাকবেন?

কলমাকান্দায় থাকার ভালো কোনো জায়গা নেই। তাই দিনে গিয়ে দিনে ফিরে আসাই ভালো। তবে থাকতে চাইলে নেত্রকোনা সদরে থাকতে পারেন।

নেত্রকোনা সদরেও থাকার জন্য ফাইভ স্টার বা ভালো মানের হোটেল না থাকলেও মধ্যম মানের বেশ কয়েকটি সরকারি বেসরকারি রেস্ট হাউজ আছে। মাত্র ১-২ হাজার টাকায় এগুলোতে থাকা যায়।

লেখক: ফিচার লেখক ও গণমাধ্যমকর্মী

জেএমএস/এমএস