সিন্ডিকেট নির্বাচন ঘিরে চাঙ্গা শাবি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:০১ এএম, ২০ ডিসেম্বর ২০১৭

আসন্ন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট ও একাডেমিক কাউন্সিলের নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থী শিক্ষকরা দিন-রাত প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এ নির্বাচন। দীর্ঘ দিন পর এ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শিক্ষকদের মাঝে চাঙ্গা মনোভাব চলে এসেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে এক ধরনের উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে।

নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন প্যানেলের প্রার্থীরা জয়লাভের ব্যাপারে অনেক আশাবাদী। প্রার্থীদের সঙ্গে প্যানেলের সিনিয়র শিক্ষকরাও প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন।

এবারের নির্বাচনে আওয়ামী পন্থী শিক্ষকরা ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ’ ও ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্তচিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ’ নামে আলাদা প্যানেল এবং বিএনপি-জামায়াত পন্থী শিক্ষকরা ‘মহান মুক্তিযুদ্ধ, বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ ও ধর্মীয় মূল্যবোধে শ্রদ্ধাশীল শিক্ষক ফোরাম’ নামের প্যানেল দিয়েছে। একটি সূত্র জানিয়েছেন আওয়ামী পন্থীদের বিভাজনকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করছে বিএনপি-জামায়াত পন্থীরা।

নির্বাচনে আওয়ামী পন্থী শিক্ষকদের ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঊদ্বুদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ’র প্যানেলে সিন্ডিকেট সদস্য পদে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ সামসুল আলম, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড পলিমার সায়েন্স বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ মস্তাবুর রহমান এবং একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য পদে সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসাইন, ড. আসিফ ইকবাল, সহকারী অধ্যাপক সুব্রত দাশ, মো. সাইফুল ইসলাম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আওয়ামী পন্থী অন্য অংশের শিক্ষকদের ‘মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মুক্তচিন্তা চর্চায় ঐক্যবদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ’র প্যানেলে সিন্ডিকেট সদস্য পদে সিভিল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. জহির বিন আলম, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এএইচএম বেলায়েত হোসেন এবং একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য পদে সহযোগী অধ্যাপক মো. সেকান্দর আলী, সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ জাবেদ কায়সার ইবনে রহমান, মোহাম্মদ সাইফুল আলম আমিন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অন্যদিকে বিএনপি-জামায়াত পন্থী শিক্ষকদের ‘মহান মুক্তিযুদ্ধ, বাংলাদেশি জাতীয়তাবাদ ও ধর্মীয় মূল্যবোধে শ্রদ্ধাশীল শিক্ষক ফোরাম’ প্যানেলে সিন্ডিকেট সদস্য পদে ইন্ডাস্ট্রিয়াল অ্যান্ড প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ইকবাল, পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ তাজ উদ্দিন এবং একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য পদে সহযোগী অধ্যাপক ড. পাবেল শাহরিয়ার, ড. ওয়াহিদ উজ্জামান, সহকারী অধ্যাপক সোবহানা তানজিমা আতিক, মো. মতিয়ার রহমান প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এসব প্রর্থীদের মধ্য থেকে সিন্ডিকেটের সদস্য পদে দুইজন এবং একাডেমিক কাউন্সিলের সদস্য পদে দুইজন সহযোগী অধ্যাপক এবং দুইজন সহকারী অধ্যাপক নির্বাচিত হবেন।

নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও রেজিস্ট্রার ইশফাকুল হোসেন জানান, আমরা ব্যালট পেপার তৈরি করেছি। আমাদের ভোট গ্রহণের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। নির্বাচনে সিন্ডিকেটের দুইটি পদের বিপরীতে ৬ জন এবং একাডেমিক কাউন্সিলের চারটি পদের বিপরীতে ১১ জন শিক্ষক প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তিনি আরো জানান, সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত প্রশাসনিক ভবনের সভাকক্ষে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১২ সালের জুলাইয়ে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। দুই বছর পর পর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার বিধান থাকলেও বিভিন্ন কারণে দীর্ঘদিন ধরে নির্বাচন হয়নি।

আব্দুল্লাহ/এফএ/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :