শহুরে জীবনে গ্রামীণ আবহ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৯ পিএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৮

মূল ফটক দিয়ে প্রবেশ করতেই হাতের বাম পাশে দেখা মিলবে একটি অভ্যর্থনা বক্স। সেটি পেরিয়ে সামনে এগুলে ভিন্ন এক পরিবেশ। দেখা মিলবে গ্রামীণ পিঠা-পুলি, হস্তশিল্প, পোশাক, চিত্রকর্ম, মাটির তৈজসপত্র, প্রকাশনা, অলংকৃত চারা গাছসহ ঐতিহ্যবাহী স্থানের ক্ষুদ্র প্রতিরূপ। বিভিন্ন স্টলে স্টলে সাজানো এসব পণ্য। আর ভিতরের মিলনায়তনে চলছে গ্রামীণ নৃত্য, নাটক, গানসহ আরও কত কী!

এ যেন যান্ত্রিক জীবনে হাঁপিয়ে ওঠা নগরবাসীকে ভিন্ন স্বাদ দেয়ার আয়োজন। এটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবস্থিত ব্রিটিশ কাউন্সিলের ভিতরের আজকের দৃশ্য। পুরো দৃশ্যটিই বাংলার গ্রামীণ জীবনের অবলম্বনে গ্রামের হাটের থিম দিয়ে সাজানো। দুই দিনব্যাপী এ পৌষ মেলার আয়োজক ব্রিটিশ কাউন্সিল। সহযোগিতায় রয়েছে মি. নুডলস এবং রেড কার্পেট ৩৬৫ লিমিটেড।

শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে শুরু হওয়া এ মেলা চলবে আগামীকাল শনিবার রাত ৯টা পর্যন্ত। বিভিন্ন পণ্য উপস্থাপন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে পৌষ মেলার বিভিন্ন সময়ে তুলে ধরা হচ্ছে বাংলাদেশের গ্রামীণ সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের চিত্র। মেলাটি সর্ব সাধরণের জন্য উন্মুক্ত রাখা হয়েছে।

মি. নুডলস এর হেড অব মার্কেটিং তৌষণ পাল বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য হচ্ছে ঢাকার মানুষকে পৌষ মেলার স্বাদ দেয়া। ঢাকার মানুষ গ্রাম বাংলার আবহ পায় না। তাই তাদের এর সঙ্গে সম্পৃক্ত করাই আমাদের উদ্দেশ্য। আগামীতেও এ ধরণের অনুষ্ঠানের আয়োজন করার চেষ্টা থাকবে আমাদের।

মেলায় বাংলার দক্ষ কারিগরদের দক্ষতা ও নারী উদ্যোক্তাদের কাজ প্রদর্শিত হবে। প্রদর্শনীতে উদ্যোক্তাদের বানানো পিঠা-পুলি, হস্তশিল্প, পোশাক, চিত্রকর্ম, মাটির তৈজসপত্র, প্রকাশন, অলংকৃত চারা গাছ এবং জনপ্রিয় ঐতিহ্যবাহী স্থানের ক্ষুদ্র প্রতিরূপ প্রদর্শিত ও বিক্রি হচ্ছে।

মেলার একদিকে প্রদর্শনী ও অন্যদিকে থাকছে নানা ধরনের উৎসবের খাবারের আয়োজন। এ রান্নাগুলো গ্রামীণ বাংলা ও শহুরে শৈলীর মিশ্রণ। মেলাতে শিশু, তরুণ ও বয়স্কদের জন্য থাকছে আলাদা আলাদা নানা ধরনের আয়োজন। যার মধ্যে থাকছে বাউল গান, পাপেট শো, মুনসুন লেটারসের কবিতা আবৃত্তি এবং উদীয়মান শিল্পীদের অংশগ্রহণে সঙ্গীতানুষ্ঠান।

ছোটদের বিনোদনে জন্য থাকছে বায়োস্কোপ, কার্টুন মাস্কট এবং জাম্পিং গেমস। এছাড়াও, মেলাতে সবার জন্য থাকছে সেলফি বুথ এবং শিশু-কিশোরদের জন্য থাকছে ইংরেজি শেখার ব্যবস্থা। মেলায় আগত দশজন ভাগ্যবান দর্শনার্থী পাবেন বিনামূল্যে ব্রিটিশ কাউন্সিল গ্রন্থাগারের সদস্যপদ। সবমিলিয়ে এ পৌষ মেলাতে, শিশু থেকে বয়স্ক সবার জন্য থাকছে উৎসবের আবহে নানা ধরনের বিনোদনের ব্যবস্থা।

এমএইচ/এমবিআর/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :