ছাত্রলীগ কর্মীকে পেটাল নেতারা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ১২:৩৯ পিএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ১২:৪৯ পিএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭
ছাত্রলীগ কর্মীকে পেটাল নেতারা

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) আবাসিক হলের সিট দখল নিয়ে এক ছাত্রলীগ কর্মীকে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা পিটেয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার মধ্যরাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ঈশা খাঁ হলে এ ঘটনা ঘটে। তবে ওই ছাত্রলীগ কর্মীকে জুয়ারু ও নেশাখোর বলে অভিযোগ করেছে অভিযুক্ত নেতাকর্মীরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, আবাসিক ঈশা খাঁ হলের পশ্চিম ভবনের ১০৯ নম্বর রুম দীর্ঘদিনের বাসিন্দা মাহমুদুল হাসান। হাসান ভেটেরিনারি অনুষদের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। প্রথম থেকেই সে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। সম্প্রতি ওই রুমে জুনিয়র কর্মী তোলা হবে বলে কক্ষটি খালি করার জন্য বলে শাখা ছাত্রলীগ ও ওই হলের নেতাকর্মীরা। পরে খালি করতে বাধ্য করা হলে হাসান তার পরিচিত কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের এক নেতার দ্বারা মোবাইলে রুম যেন খালি না করা হয় তা বলায় হলের নেতাদের। এতে হলের নেতাকর্মীরা ক্ষীপ্ত হয়ে হাসানকে ২০৯ নম্বর রুমে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এনামুল কবির পায়েল, জুলফিকার আলী খান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার আলম সরকার এলিন, ক্রীড়া সম্পাদক দীপ উজ্জ্বল কর, আপ্যায়ন সম্পাদক মাহবুবুর রহমান অপু, উপ-বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক রূপক চন্দ্র দাস, আতিকুল হক ও মাজেদ।

জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে হাসানকে মারধর করলে সে দৌড়ে পালিয়ে আসে। পরে তার বন্ধুরা তাকে আহত অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের হেল্থ কেয়ারে নিয়ে আসে। প্রক্টর এসে তাকে প্রথমিক চিকিৎসা দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে ময়মনসিংহ মেডিকেলে পাঠিয়ে দেয়। শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে জানান, বার বার প্রভোস্টকে ফোন দেয়ার পরও তিনি ধরেননি।

এদিকে সহ-সভাপতি এনামুল কবির পায়েল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, হাসানের মানসিক সমস্যা রয়েছে। সে নেশা করে এবং বিভিন্ন জুয়ার আসরে তার যাতায়াত রয়েছে।

শাহীন/এমএএস/আইআই

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com