বর্ণিল পাখি মেলা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:০২ পিএম, ১৯ জানুয়ারি ২০১৮
বর্ণিল পাখি মেলা

এমনভাবে হাতে ছুয়ে পাখি আগে দেখিনি। মেলায় এসে অনেক ভাল লাগছে। উত্তরার মাইলস্টোন স্কুলের ক্লাস ওয়ানের ছাত্র সানিমের কাছে পাখি মেলা সম্পর্কে জানতে চাইলে এভাবে সে তার অনুভূতি প্রকাশ করে। সানিম চোখমুখে হাসি নিয়ে ঘুরে ঘুরে দেখছে পাখি মেলার বিভিন্ন স্টল। সানিম তার ছোট বোন আফরা আর মায়ের সঙ্গে মেলায় এসেছে। তাদের সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে পাখির মমি দেখে। এর আগে তারা আগে কখনো জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের পাখি মেলায় আসেনি।

মোহাম্মদ প্রিপারেটরি স্কুল থেকে এসেছিল খাদিজা বেগম, সে ক্লাস টুতে পড়ে। খাদিজা তার মা-বাবা ও ছোট বোন আতিয়ার সঙ্গে এসেছিল পাখি মেলায়। স্কুলের শিক্ষকরা তাদের আগেই জানিয়েছিল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পাখি মেলার কথা। তারাও মেলায় এসে অনেক কিছু দেখেছে, অনেক পাখির নাম জেনেছে।

সানিম, আফরা, খাদিজা ও আতিয়ার মতো অনেক শিশুই মেলায় এসেছে। অনেকেই বিভিন্ন পত্র-পত্রিকা বা স্কুলের মাধ্যমে জেনে ছেলে মেয়েদেরকে নিয়ে ঘুরতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে এসেছিলেন। এ ছাড়া হাজারো দর্শনার্থীতে শুক্রবার সকাল থেকেই মুখর ছিল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন জায়গা।

bird

শুক্রবার সকাল সাড়ে দশটায় জাহাঙ্গীনরগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম জহির রায়হান মিলনায়তনের সামনে মেলার উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এ সময় উপাচার্য বলেন, প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদকে ভালবাসতে হবে প্রাণ থেকে। প্রকৃতির সৌন্দর্য দেখা সৌভাগ্যের বিষয়। সৌভাগ্যের অনুষঙ্গ প্রাণিগুলোর বসবাসযোগ্য পরিবেশ অক্ষুণ্ন রাখার দায়িত্ব পালনে সবার অংশীদারিত্ব থাকতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য আরও বলেন, অনেকেই ছোট্ট শিশুদের আদর করে মুনিয়া টিয়া টুনটুনি নামে ডাকেন। পাখির প্রতি ভালবাসা থেকেই মানুষজন এমন সম্বোধন করে থাকেন।

এবারের পাখিমেলায় ৩ জনকে বিগ বার্ড অ্যাওয়ার্ড প্রদান করেছে মেলার আয়োজক কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার উপাচার্য জয়ীদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট তুলে দেন।

বিগ বার্ড সম্মাননা পাওয়া তিন জন হলেন- হাসনাত রনি, রাজিব রাশেদুল কবির এবং মো. তারিক হাসান।

আগামী বছর থেকে পাখি সম্পর্কিত বৈজ্ঞানিক গবেষকদেরও পুরস্কৃত করা হবে বলে জানান পাখি মেলার আহ্বায়ক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. কামরুল হাসান।

maala-01

অনুষ্ঠিত পাখিমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক শেখ মনজুরুল হক।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- বিশিষ্ট পাখিবিশারদ ড .ইনাম আল হক, আইসিইউএন বাংলাদেশ প্রতিনিধি রাকিবুল আমিন, বন সংরক্ষক জাহিদুল কবির, আরন্যক এর প্রধান নির্বাহী ফরিদ উদ্দিন, কথা সাহিত্যিক আখতার হোসেন প্রমুখ। স্বাগত বক্তব্য দেন পাখিমেলার আহবায়ক অধ্যাপক ড. কামরুল হাসান। প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মডারেটর ছিলেন ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. এটিএম আতিকুর রহমান।

দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত পাখিমেলায় ছোটদের পাখি বিষয়ক চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, কুইজ, বই-পোস্টার প্রদর্শনী, সংরক্ষিত বিভিন্ন প্রজাতির পাখি, পাখি দেখা, পাখি চেনার প্রতিযোগিতা, পাখি বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

হাফিজুর রহমান/এনএফ/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com