ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে রাবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

কোটা সংস্কার আন্দোলনে ঢাকায় আটকদের মুক্তির দাবিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রধান ফটকের সামনে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। প্রায় এক ঘণ্টা আন্দোলনের পর তারা ক্যাম্পাসে ফিরে যান।

বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় তিন শতাধিক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে জড়ো হয়ে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করেন। বিক্ষুদ্ধ আন্দোলনকারীরা কোটা পদ্ধতি সংস্কার ও ঢাকায় আটকদের মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন।

ঘণ্টাব্যাপী অবরোধে কারণে মহাসড়কের দু’পাশে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে রাত ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা ও মতিহার থানা পুলিশ আন্দোলনকারীদের মহাসড়ক থেকে ক্যাম্পাসের ভেতরে নিয়ে যায়।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সক্রিয় সদস্য রাবির ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী মাসুদ মুন্নাফ বলেন , ঢাকায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের কোনো অপরাধ না থাকলেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাদের গ্রেফতার করেছে। বঙ্গবন্ধুর বাংলায় যদি কোটা পদ্ধতির সংস্কার না হয় তা হলে আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাব। দরকার হলে বাংলার প্রতিটা জায়গায় এই আন্দোলনের রেশ পৌঁছে দিব।

তিনি আরও বলেন, যদি ঢাকায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের আজ রাতের মধ্যে না ছেড়ে দেয়া হয় তাহলে আমরা আগামীকাল আরও বড় ধরণের পদক্ষেপ গ্রহণ করব।

jagonews24

রাবির প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। মহাসড়কে অবরোধের ফলে মানুষের ভোগান্তি হচ্ছে, বিষয়টি শিক্ষার্থীদের বুঝিয়েছি। তারা ক্যাম্পাসে ফিরে এসেছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদত হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ পাঠানো হয়েছে। শিক্ষার্থীরা এখন মহাসড়ক ছেড়ে ক্যাম্পাসে গেছে। অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতি এড়াতে ক্যাম্পাস এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে বুধবার ঢাকায় আন্দোলন চলাকালে ৫৩ জনকে আটক করে রমনা থানা পুলিশ। পরে রাত ৯টার দিকে আন্দোলনের মুখে আটকদের ছেড়ে দেয়া হয়।

রাশেদ রিন্টু/আরএআর/আরআইপি

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :