চাকরি নিশ্চিত করতে ঘুষ দেয়ার চেষ্টা : যুবক শ্রীঘরে

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০০ পিএম, ১৫ এপ্রিল ২০১৮

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষের কক্ষে ৯ লাখ টাকার একটি ব্যাগ রেখে পালানোর সময় শিক্ষার্থীদের হাতে আটক হয়েছেন এক চাকরি প্রত্যাশী। আটক চাকরি প্রার্থী ইলিয়াস হোসেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনটি পদে আবেদন করেছেন। অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষ ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।

রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন থেকে তাকে আটক করা হয়। নীলক্ষেত পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সাহেব আলী জানান, আটক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে। সে বর্তমানে শাহবাগ থানায় আছে।

জানা গেছে, আটক ইলিয়াস হোসেন কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশোনা শেষ করেছেন। ফেব্রুয়ারিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন পদে নিয়োগের জন্য সার্কুলার দেয়া হলে ইলিয়াস তিনটি ‘অফিসার পদে’ আবেদন করেন। সেখানে তার নিয়োগ নিশ্চিত করতে এই ঘুষ দেয়ার চেষ্টা করেন।

বিশ্ববিদ্যালযের সহকারী প্রক্টর মো. আবদুর রহিম বলেন, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির টেবিলে ৯ লাখ টাকার একটি ব্যাগ রাখে ওই যুবক। পরে ব্যাগ চেক করে টাকা পাওয়া গেলে তাকে এর কারণ জানতে চাওয়া হয়। এ সময় সে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পরে প্রক্টরিয়াল টিমের সদস্যরা তাকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করে।

এ বিষয়ে অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষ বলেন, একটা ছেলে আমাকে ঘুষ দিতে এসেছিল। পরে ছাত্রদের সহায়তায় তাকে আটক করে থানায় দেয়া হয়।

এমএইচ/ওআর/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :