মায়ের মতো আদর করতেন নার্সারির ক্লাস টিচার : জাভেদ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক চবি
প্রকাশিত: ০৩:৫৯ পিএম, ২২ জুন ২০১৮

আজকের দিনে আমার নার্সারির ক্লাস টিচারের কথা মনে পড়ে। উনি মায়ের মতো আদর করতেন। আমাদের শিক্ষকরা না থাকলে আমরা মানুষই হতাম না। তাদের অবদান কখনও ভোলার নয়।

শুক্রবার চট্টগ্রাম নগরীর ঐতিহ্যবাহী সেন্ট মেরীস স্কুলের পুনর্মিলনী উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রাক্তন শিক্ষার্থী হিসেবে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে এসব কথা বলেন ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাভেদ। এসময় তিনি প্রাক্তন শিক্ষকদের ইতিহাস জেনে তাদের পদাঙ্ক অনুসরণ করার জন্য বর্তমান শিক্ষকদের অনুরোধ জানান।

শেখ হাসিনার সরকার বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম ধারাবাহিক সরকার উল্লেখ করে ভূমি প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ ধারাবাহিকতার সুফল জনগণ বুঝতে পারছে। কারণ বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশ ও জাতির কাছে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, তলাবিহীন ঝুড়ি ও যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলেন বঙ্গবন্ধু। আজ তার কন্যা ৪ লক্ষ ৬৫ হাজার কোটি টাকার বাজেট দিচ্ছেন। যা আর কেউ সাহস করেনি। বাজেটের ধারাবাহিকতা রাখছেন। শিক্ষাখাতে দেয়া হচ্ছে সর্বোচ্চ বরাদ্দ।

অনুষ্ঠানে আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক আজিজুল হাকিমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন চৌধুরী, সেন্ট মেরীস স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সিস্টার ম্যারি সংগীতা, নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) এস এম মোস্তাইন হোসাইন বিপিএম, চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক অহিদ সিরাজ স্বপন, সহ-আহ্ববায়ক আশিক ইমরান ও সদস্য সচিব আবু বকর শাহেদ।

এর আগে সকাল ৯টায় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। এতে বিপুল উচ্ছ্বাস উদ্দীপনা নিয়ে প্রাক্তন বর্তমান শিক্ষক শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। শোভাযাত্রাটি স্কুল প্রাঙ্গন থেকে শুরু করে চেরাগী মোড় ঘুরে ফের স্কুলে এসে সমাপ্ত হয়। পরে স্মৃতিচারণ পর্বে আবেগের রোমন্থন করেন সাবেকরা। প্রিয় স্কুল আঙিনায় শৈশবের বন্ধুদের ফিরে পেয়ে আনন্দ মেতে উঠেন প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা। কেউ কেউ শৈশবের স্মৃতিপটে হাতড়ে খুঁজে বেড়ান নিজেদের।

পুরো আয়োজনে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কম।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয়পর্ব অনুষ্ঠিত হচ্ছে ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউটে। যেখানে বিকেলে কেক কেটে পুনর্মিলনী উৎসব উদযাপন করা হবে। এছাড়াও স্কুল ডকুমেন্টারি প্রদর্শনী ও এক্স মেরিয়ান্সদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনাও রয়েছে। সন্ধ্যায় শিরোনামহীন ও তীরন্দাজ ব্যান্ডের পরিবেশনার মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে প্রাণের মিলনমেলার।

আবদুল্লাহ রাকীব/এমএএস/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :