আমার ভাইটা টিচার হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিল এটাই তার অপরাধ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:২৮ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০১৯

সুদূর জার্মানিতে বসে চোখের জলে বুক ভাসাচ্ছেন ভাই হারানো এক বড় বোন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কমিউনিকেশন ডিজঅর্ডার বিভাগের শিক্ষিকা শান্তা তাওহিদা নামের ওই বড় বোন হাজার হাজার মাইল দূরে থেকে ছোট ভাইটির আত্মহত্যার দুঃসংবাদটি পান। তিনি কিছুতেই বিশ্বাস করতে পারছেন না যে ছোট ভাইটি আত্মহত্যা করেছে। তার প্রশ্ন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিষয়ে অনার্সে যে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হয়েছে সে কীভাবে আত্মহত্যা করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের কারণে সে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে বাধ্য হয়েছে বলে অভিযোগ তার।

সোমবার ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘আমার কলিজার টুকরা আমার আদরের একমাত্র ভাই আমার প্রতীক আর নাই...শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এর জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগ কে আমি ছাড়ব না, অনার্স এ প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হওয়া ছেলেটাকে বিভিন্ন ইস্যু বানায়ে মাস্টার্স এ সুপারভাইজার দেয় নাই, বিভিন্ন কোর্সে নম্বর কম দিয়েছে!

আমার ভাইটার টিচার হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিল এটাই তার অপরাধ... ছয় মাস ধরে ডিপার্টমেন্ট তিলে তিলে মেরে ফেলছে আমার ভাইকে...আমার কলিজার টুকরা কষ্ট সহ্য না পেরে কাল সুইসাইড করেছে... আমার কলিজার টুকরা ছাড়া আমি কীভাবে বাঁচব? ভাইরে আমি আসতেছি তোর কাছে ভাই...

আমার ভাইটারে গত মাসেও আমি জিজ্ঞেস করেছি আমি কী তোর বিভাগের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে মামলা করব? আমার ভাই বলছে আপু আমি জিআরআই দিয়েছি আপু, আমি ইউকে চলে যাব, আমার তো রেফারেন্স লাগবে! শিক্ষকরা ভয় দেখাইছে কিছু করলে রেফারেন্স লেটার দিবে না...

আমার ভাইরে মেরে ফেলছে ওরা...আমি কই পাব আমার টুকরারে আমি কই পাব?

তার স্ট্যাটাসের জবাবে অনেকেই সান্ত্বনা দিচ্ছেন, কেউ সান্ত্বনা দেয়ার ভাষা হারিয়ে ফেলেছেন।

এ বিষয়ে জানতে জাগো নিউজের প্রতিবেদক শান্তা তাওহিদার স্বামীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ মুহূর্তে কোনো প্রকার মন্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি বলেন, তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখেশুনে প্রয়োজনে গণমাধ্যমকে সার্বিক বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত করবেন।

এমইউ/জেএইচ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :